CC News

পদ হারাচ্ছেন ফখরুল ইসলাম!

 
 

fokrulঢাকা : পদ হারাতে চলেছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর! এ ধরনের একটি গুঞ্জন চলছে খোদ বিএনপির হাইকমান্ড পর্যায়ে।

ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুলের আত্মগোপনে যাওয়াসহ তার নানা ব্যর্থতার বিষয়গুলো পর্যালোচনা করেই দলটির হাইকমান্ড এ পদে পরিবর্তন চাইছে। এ ধরনের আভাস দিয়েছে দলটির একাধিক নির্ভরযোগ্য সূত্র।

সম্প্রতি বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও দলের চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা শমসের মবিন চৌধুরীর মধ্যকার একটি অডিও ক্লিপ ইউটিউবে ফাঁস হয়ে যায়। তাতে মির্জা ফখরুলের আত্মগোপনে চলে যাওয়া নিয়ে তারেক রহমান এক ধরনের অসন্তোষ প্রকাশ করেন। তারেক রহমান বলেন, মির্জা ফখরুল সাহেবের হাইডেনসিক ভালোভাবে নিচ্ছে না কর্মীরা। তাদের মধ্যে প্রতিক্রিয়া হচ্ছে।

দলটির নির্ভরযোগ্য সূত্রগুলো জানিয়েছে, হালে একটি বিবৃতি পাঠানো নিয়ে মির্জা ফখরুলের সাথে দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে দূরত্ব সৃষ্টি হয়। ওই বিবৃতিটি মির্জা ফখরুল দলীয় প্রধানের অনুমতি না নিয়েই গণমাধ্যমে পাঠান। এ নিয়ে খালেদা জিয়া মির্জা ফখরুলের ওপর অসন্তোষ প্রকাশ করেন। কেন তাকে না জানিয়েই পাঠানো হলো তা জানতে চান খালেদা জিয়া।

এ বিষয়ে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এক ঘনিষ্ঠজন জানান, কয়েকদিন আগে একটি বিবৃতি পাঠানো নিয়ে দলীয় প্রধানের সঙ্গে মির্জা ফখরুলের একটু ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে। বিবৃতিটি পাঠানোর পর ম্যাডামকে জানানো হয়েছিল। তবে সে সমস্যার অবসান হয়ে গেছে।

এদিকে সোমবার রাত সাড়ে ৮টায় ১৮ দলীয় জোটের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। সর্বশেষ ১৯ নভেম্বর ১৮ দলের সঙ্গে বৈঠকে বসেছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসন। ৫২ দিন পর আবার নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে বসলেন খালেদা জিয়া। কিন্তু সে বৈঠকেও মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে উপস্থিত হতে দেখা যায়নি।

বৈঠকে বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা রিয়াজ রহমান, সাবিহউদ্দিন আহমেদ, ভাইস চেয়ারম্যান শমসের মোবিন চৌধুরী উপস্থিত থাকলেও দলের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব উপস্থিত না থাকায় ১৮ দলের নেতাদের মধ্যেও গুঞ্জন শুরু হয়। তবে কি সত্যিই পদ হারাচ্ছেন মির্জা ফখরুল?

সূত্র: রাইজিংবিডি

Print Friendly, PDF & Email