CC News

পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) আজ

 
 
Eidসিসি ডেস্ক: আজ পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.)। বিশ্বনবী হজরত মুহাম্মদের (সা.) জন্মদিন। ৫৭০ খ্রিস্টাব্দের ১২ রবিউল আউয়াল আরবের মক্কা নগরীতে জন্মগ্রহণ করেছিলেন বিশ্ববাসীর জন্য আল্লাহর পক্ষ থেকে রহমতস্বরূপ সর্বশেষ ও সর্বশ্রেষ্ঠ এই মহামানব। আইয়ামে জাহেলিয়াতের সেই যুগে সমাজে গেড়ে বসা কুসংস্কার ও মূর্খতা দূর করে মানুষকে আলোর পথ দেখিয়ে ৬৩ বছর বয়সে একই দিনে তিনি ইহলোক ত্যাগ করেন। তাই রাসুলের (সা.) জন্ম ও ওফাতের এ দিনটি সারা বিশ্বের মুসলমানদের কাছে মর্যাদা ও তাত্পর্যপূর্ণ। দীর্ঘদিন ধরেই মুসলমানরা এ দিনটি
উদযাপন করে বিশেষ গুরুত্বের সঙ্গে। বরাবরের মতো এবারও সারাদেশের মুসলমানরা ইবাদত-বন্দেগি, মিলাদ, জশনে জুলুস, আলোচনা ও দোয়া মাহফিলসহ
বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে দিবসটি উদযাপন করবে।
আজ সরকারি ছুটির দিন। দৈনিক পত্রিকা অফিসগুলো আজ বন্ধ থাকবে। তাই আগামীকাল কোনো পত্রিকা প্রকাশ হবে না। ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উপলক্ষে রাজধানীসহ সারাদেশের বড় বড় মসজিদে আয়োজন করা হয়েছে বিশেষ ইবাদত-বন্দেগি ও আলোচনা অনুষ্ঠান। বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান ও সংগঠনের পক্ষ থেকে ব্যাপক কর্মসূচির মাধ্যমে দিবসটি উদযাপিত হবে। রাজধানীতে বের হবে বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের জশনে জুলুস। এ উপলক্ষে দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়ে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতারা বাণী দিয়েছেন।
খালেদা জিয়ার বাণী : বিরোধীদলীয় নেতা বেগম খালেদা জিয়া তার বাণীতে বলেন, মহানবী (সা.) মানব জাতির জন্য এক উজ্জ্বল অনুসরণীয় আদর্শ। নিজ যোগ্যতা, মহানুভবতা, সহনশীলতা, কঠোর পরিশ্রম, আত্মপ্রত্যয়, নিষ্ঠা ও অপরিসীম দুঃখ-যন্ত্রণা ভোগ করে তার ওপর অবতীর্ণ সর্বশ্রেষ্ঠ মহাগ্রন্থ আল-কোরআনের বাণী তথা তওহীদ প্রতিষ্ঠার মহান দায়িত্ব তিনি পালন করেছেন। তিনি আইয়ামে জাহেলিয়াতের অন্ধকার যুগ দূর করে অত্যাচার ও জুলুম বরণ করে সত্যকে সুপ্রতিষ্ঠিত করেছিলেন। সমাজে অবহেলিত, নির্যাতিত মজলুমদের সেবা, একে অপরের প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শন, পরমতসহিষ্ণুতা, দয়া ও ক্ষমাগুণ, শিশুদের প্রতি দায়িত্ব এবং নারী জাতির মর্যাদা প্রতিষ্ঠায় মহানবী (সা.) আমাদের সর্বকালের আদর্শ। আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের কাছে প্রার্থনা করি মহানবীর (সা.) শিক্ষা ও আদর্শের আমরা সবাই যেন নিজেদের জীবনে প্রতিফলন ঘটাতে পারি। তিনি পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী উপলক্ষে বাংলাদেশসহ বিশ্বের মুসলিম ভাই-বোনদের আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন এবং সাইয়েদুল মুরছালিন হজরত মোহাম্মদের (সা.) কাছে অসংখ্য দরুদ ও সালাম জানান।
কর্মসূচি : পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উপলক্ষে গতকাল থেকে পক্ষকালব্যাপী অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করেছে ইসলামিক ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ। অনুষ্ঠানমালায় রয়েছে ওয়াজ মাহফিল, সেমিনার ও আলোচনা সভা, ইসলামী বইমেলা এবং ছাত্রছাত্রীদের জন্য কস্ফিরাত, আজান, হামদ-নাত ইত্যাদি ইভেন্টে ইসলামী সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা।
উৎসঃ   আমার দেশ
Print Friendly, PDF & Email