CC News

মহিলা আসনের নির্বাচন বিষয়ে ইসির চিঠি

 
 
ECঢাকা: সংরক্ষিত মহিলা আসনের নির্বাচনের বিষয়ে প্রস্তুতি নিতে সংসদে প্রতিনিধিত্বকারী দলগুলোকে সোমবার চিঠি পাঠিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। একইসঙ্গে দল বা জোটে যাওয়ার ব্যাপারে প্রতিনিধিত্বকারী সাতটি দল ও স্বতন্ত্র প্রার্থীদের কাছে চিঠিতে জানতে চাওয়া হয়েছে বলে ইসি কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

জানতে চাইলে এ বিষয়ে সোমবার নির্বাচন কমিশনার মো. শাহ নেওয়াজ বলেন, ১৬ জানুয়ারি স্থগিত ৮ আসনের নির্বাচনের পরপরই সংরক্ষিত মহিলা আসনের নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হবে। এ বিষয়টি জানাতেই সংসদে প্রতিনিধিত্বকারী দলগুলোকে চিঠি দেয়া হচ্ছে।

আইন অনুযায়ী সাধারণ নির্বাচনের পরে ৯০ দিনের মধ্যে সংরক্ষিত আসনে ভোটগ্রহণ করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে। এদিকে, সংসদ সচিবালয় শপথ নেয়া দল ও জোট অনুযায়ী সাংসদদের তালিকা রবিবার ইসিকে পাঠিয়েছে সংসদ সচিবালয়।

গত বৃহস্পতিবার ও শনিবার ২৮৯ জন সাংসদ শপথ নেন। ৮ জানুয়ারি ২৯০ আসনে নির্বাচিতদের ফলাফল গেজেটে প্রকাশ করে ইসি। এর মধ্যে আওয়ামী লীগ ২২৯, জাতীয় পার্টি ৩৩, ওয়ার্কার্স পার্টি ছয়, জাসদ পাঁচ, স্বতন্ত্র ১৪ এবং জেপি, তরীকত ও বিএনএফ একটি করে আসন পায়।

ইসি কর্মকর্তারা জানান, ৫০টি সংরক্ষিত আসন সংসদের ৩০০ আসনের বিপরীতে ভাগ করে দল বা জোটের অনুকূলে আসন বণ্টন করা হবে। সংসদে আনুপাতিক প্রতিনিধিত্ব পদ্ধতিতে প্রতি আসনের বিপরীতে সংরক্ষিত আসন দাঁড়ায় শূন্য দশমিক ১৬৭টি। সে হিসেবে ২৮৯ আসনের মধ্যে আওয়ামী লীগ পাবে ৩৮টি আসন, জাতীয় পার্টি ছয়টি আসন, জাসদ একটি, ওয়ার্কার্স পার্টি একটি ও স্বতন্ত্র প্রার্থীরা দুটি সংরক্ষিত আসন পাবেন।

উল্লেখ্য, ২০০৪ সালের সংবিধানের চতুর্দশ সংশোধনীর মাধ্যমে ৪৫ নারী আসন ১০ বছরের জন্য সংরক্ষণ করা হয়। এর আগ পর্যন্ত সংসদে সংরক্ষিত নারী আসনসংখ্যা ছিল ৩০। পরে নবম সংসদে পঞ্চদশ সংশোধনীতে নারী আসন ৫০টি সংরক্ষিত করা হয়।

Print Friendly, PDF & Email