CC News

কুড়িগ্রামে একই পরিবারের ৪ জনকে কুপিয়ে হত্যা

 
 

M2U07997শাহ্ আলম, কুড়িগ্রাম: কুড়িগ্রাম জেলার ভুরুঙ্গামারী উপজেলার ভারতীয় সীমান্তঘেষা একটি গ্রামে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে একই পরিবারের ৪ জনকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। একজনকে আশংকাজনক অবস্থায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
থানা সুত্রে জানাগেছে, গতকাল মঙ্গলবার গভীর রাতে উপজেলার পাথরডুবি ইউনিয়নের ভারতীয় সীমান্তঘেষা  দিয়াডাঙ্গা গ্রামে মৃত বাঙ্গু ব্যাপারীর পুত্র সুলতান হোসেন (৬০) নামক এক ব্যক্তির শয়ন কক্ষে সিঁধ কেটে দুর্বৃত্তরা প্রবেশ করে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে সুলতান হোসেন, তার স্ত্রী হাজেরা খাতুন (৪৫), মেয়ে মৌসুমী (১৬), নাতনী রুমানা (২০) ও এ্যানী (১০) কে গুরতর জখম করে পালিয়ে যায়। পরে এলাকাবাসী ঘটনাস্থলে এসে সুলতান , নাতনী রুমানা ও এ্যানীকে মৃত অবস্থায় দেখতে পায় এবং মারাত্মক আহত অবস্থায় স্ত্রী হাজেরা ও মেয়ে মৌসুমী কে রাত ৩ টায় রংপুর মেডিকেলে কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। সেখানে স্ত্রী হাজেরার মৃত্যু ঘটে।
এলাকাবাসী সুত্রে জানাগেছে, সুলতান হোসেনের পিতা বাঙ্গু ব্যাপারী ভারতের সীমান্তবর্তী গ্রাম গাড়ালঝড়ার বাসিন্দা। সে বাংলাদেশ ও ভারতে উভয় দেশে জমি ক্রয় করে। ভারতীয় বাসিন্দা সুলতান কিছু দুর্বৃত্তের অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে প্রায় ৩০ বছর আগে ভারতের জমি বিক্রি করে বাংলাদেশের দিয়াডাঙ্গা গ্রামে বসবাস শুরু করে এবং বেশ কিছু জমি ক্রয় করে। ধারনা করা হচ্ছে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে তাদেরকে হত্যা করা হয়েছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কুড়িগ্রামের এডিশনাল এসপি শাহাবুদ্দিন ভুরুঙ্গামারী থানার ওসি মাহফুজুর রহমান ঘটনাস্থলে পরিদর্শন করে লাশের সুরতহাল রির্পোট তৈরী করছেন।

Print Friendly, PDF & Email