CC News

নীলফামারীতে মন্দির ভিত্তিক শিক্ষা কার্যক্রমের পুরস্কার বিতরণ

 
 

Nilphamari Photo
নীলফামারী প্রতিনিধি: নীলফামারী জেলা প্রশাসক মো. জাকীর হোসেন বলেনেন ‘দেশে প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষিত নাগরিকরে সংখ্যা অনেক বেশী কিন্তু নৈতিক শিক্ষায় শিক্ষিত নাগরিকের সংখ্যা অনেক কম। তাই আগামী প্রজন্মকে প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষার পাশাপাশি নৈতিক শিক্ষায় শিক্ষিত করে গড়ে তুলতে হবে আমাদের।’
বুধবার বিকালে জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাষ্ট নীলফামারীর আয়োজনে মন্দির ভিত্তক শিশু ও গণ শিক্ষা কার্যক্রম ২০১৩ শিক্ষা বর্ষের শ্রেষ্ট শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।
জেলা প্রশাসক শিক্ষকদের উদ্দ্যেশে বলেন, আপনারা মানুষ গড়ার কারিগর। আজ আপনারা এই কোমলমতি শিশুদের যে শিক্ষায় দিবনে তারা সেই শিক্ষায় নিবে। তাই এই শিশুদের আজ থেকে শুধু প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষায় শুধু দেবেন তা নয় এর পাশাপাশি এদের নৈতিক শিক্ষায় শিক্ষিত করে তুলবেন। যেন তারা নৈতিক শিক্ষায় শিক্ষতি হয়ে দেশের কল্যানে কাজ করতে পারে।
হিন্দু ধর্মীয় কল্যান ট্রাষ্টের ট্রাস্ট্রি বাবু রথীশ চন্দ্র ভৌমিকের সভাপতিত্বে এসময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) এসএম রফিকুন্নবী, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাবেদ আলী, জেলা হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক বাবু খোকা রাম রায়, জেলা পুজা উদযাপন পরিষদের সভখাপতি এ্যাডভোকেট অক্ষয় কুমার রায়, সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট রমেন্দ্র নাথ বর্দ্ধন বাপী, নীলফামারী হিন্দুধর্মীয় কল্যাণ ট্রাষ্টের উপ-পরিচালক হামিদুর রহমান, সুপার ভাইজার অনুপ কুমার কুন্ড।
নীলফামারী হিন্দুধর্মীয় কল্যাণ ট্রাষ্টের উপ-পরিচালক হামিদুর রহমান সিসি নিউজকে জানান, জেলার ছয়টি উপজেলার ১১৫টি কেন্দ্রের মধ্য থেকে পাঁচ জন শ্রেষ্ট শিক্ষক ও ১১৫টি কেন্দ্রের ৩৪২৫ জন শিক্ষার্থীর মধ্য থেকে ১০ জন শ্রেষ্ট শিক্ষার্থী নির্বাচিত হয়েছেন। শ্রেষ্ট এই ১৫ জনের হাতে একটি করে সনদপত্র ও নগদ অর্থ পুরস্কার তুলে দেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক মো. জাকীর হোসেন।

Print Friendly, PDF & Email