CC News

শাকিব ও অপু বিশ্বাস নিখোঁজ!

 
 

sakib-opu231বিনোদন ডেস্ক : নিখোঁজ হয়েছেন চিত্রনায়ক শাকিব খান ও চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস। গত ৩০ ডিসেম্বর থেকে তাদের দুজনকে কোথাও খোঁজ করে পাওয়া যাচ্ছে না।

দুজনেরই সেল ফোনে বারবার চেষ্টা করে তাদের পাওয়া যায়নি। চিত্রনায়ক শাকিব খান ৩০ ডিসেম্বর ঢাকার বাইরে গেছেন বলে জানা গেলেও তার বর্তমান অবস্থান কোথায় তা জানতে তার সহকারী মনিরকে ফোন করে তার ফোনও বন্ধ পাওয়া গেছে।

এদিকে ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় এ জুটির একই সময়ে উধাও হয়ে যাওয়া নিয়ে তুমুল গুঞ্জন উঠেছে চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট ও শাকিব অপুর নিকটজনদের মধ্যে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক পরিচালক জানিযেছেন, ‘অপু বিশ্বাস তার গ্রামের বাড়িতে যেতে পারেন। এর আগেও তিনি এরকম করে গিয়েছিলেন।’ তবে এবার একই সময়ে দুজনের এই আত্মগোপনে যাওয়াকে সরল চোখে দেখছে না গুঞ্জনপ্রেমী চলচ্চিত্র ভক্তরাও।

কেননা এর আগেও ঢাকাই সিনেমার এ জুটির প্রেমের সম্পর্কের গুঞ্জন হাওয়া বেশ ভালোভাবেই বয়ে গেছে বিভিন্ন সময়। যদিও তারা দুজনই নিজেদের প্রেমের সম্পর্কের ব্যাপারটি অস্বীকার করে গেছেন বারবার। চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন, অপুর প্রতি শাকিবের ভালো লাগা কিংবা শাকিবের প্রতি অপুর ভালো লাগা ও পছন্দের ব্যাপারটি কিছুটা প্রকাশ্যই। সম্প্রতি অপু বিশ্বাস মুটিয়ে যাওয়ার হাত থেকে নিজেকে রক্ষা করে ওজন কমিয়ে ফের ফিরে আসতে সক্ষম হয়েছেন চলচ্চিত্র জগতে।

অপুর প্রত্যাবর্তনের পরপরই শাকিব তার প্রযোজনায় প্রথম ছবি হিরো দ্যা সুপার এ অপুকে চুক্তিবদ্ধ করেন। পাশাপাশি আরো হাফ ডজন চলচ্চিত্রে কাজ করতে গিয়ে তারা ফের জুটি পুন:প্রতিষ্ঠিত করতে শুরু করেছেন। বাংলামেইল জানায়, এর আগে শাকিবের ওপর নাখোশ হয়েছিলেন অপু বিশ্বাস। শাকিব প্রযোজিত ‘হিরো দ্য সুপার স্টার’-কে ঘিরেই অপুর এই মনোকষ্ট।

অপুর প্রত্যাশা ছিল যেহেতু এটি শাকিবের প্রথম নির্মাণ, সেহেতু এতে তাকে একক নায়িকা হিসেবে কাস্ট করা হবে এবং তার চরিত্রের যথেষ্ট গুরুত্ব থাকবে। কিন্তু শাকিব যে গল্প নির্বাচন করেছেন তাতে তার বিপরীতে থাকছেন দুই নায়িকা। তাছাড়া তার চরিত্রের ব্যাপ্তি নাকি অন্য নায়িকাটির চেয়ে কম।

এতে শাকিবের ওপর চটেছিলেন অপু। এর আগে অপুর সঙ্গে মনোমালিন্যের কারণে তিন্নি, সাহারা, জয়া, শখ, রোমানা, ববি, মাহি, মিমসহ বেশ কয়েকজনকে নিজের বিপরীতে কাস্ট করিয়ে অভিনয় করেন শাকিব। এ প্রসঙ্গে অপু বলেছিলেন, ‘মাঝে আমাকে বাদ দিয়ে অনেকের সঙ্গে তো শাকিবের কাজ করা হলো। কিন্তু কই, আমার সঙ্গে জুটি বাঁধা চলচ্চিত্রের মতো সেগুলো তো দর্শকপ্রিয়তা পায়নি।’

সম্প্রতি চলচ্চিত্রে ফিরেই আবার তিনি শাকিবকে নিজের মতো করে ফিরে পেতে চেয়েছেন। গনমাধ্যমে তিনি বলেছেন, ‘এখন পর্যন্ত শাকিবের সঙ্গে আমার কেমিস্ট্রিই সবচেয়ে সফল।’ উল্লেখ্য, ১৯৯৬ সালে চলচ্চিত্রে আসা শাকিব খান দর্শক নজরে আসেন ২০০৮ সালে অপু বিশ্বাসের সঙ্গে ‘কোটি টাকার কাবিন’এ জুটি বেঁধে। এ পর্যন্ত অপু অভিনীত চলচ্চিত্রের সংখ্যা ৭০-এরও বেশি। এর মধ্যে শাকিবের সঙ্গে কাজ করেছেন ৯৮ ভাগ চলচ্চিত্রে। দর্শকপ্রিয়তাও পেয়েছে এই জুটি।

একসঙ্গে কাজ করতে গিয়ে চমৎকারভাবে জুটি গড়ে তোলা ছাড়াও প্রেমের সম্পর্কও গড়ে ওঠে তাদের মধ্যে। জানা যায়, তাদের সম্পর্ক এতটাই ঘনিষ্ঠ হয়ে উঠেছিল যে, শাকিব গণমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে রাখঢাক না রেখেই বলতেন ‘বিয়ে করব তো চলচ্চিত্র জগতে যার সঙ্গে আমার সবচেয়ে ভালো সম্পর্ক তাকেই করব।

২০১১ সালের দুর্গাপূজায় অপু তার বগুড়ার বাড়িতে একমাত্র শাকিব খানকে নিমন্ত্রণ করায় তাদের ভালোবাসার সম্পর্ক সবার কাছে পরিষ্কার হয়ে যায়। কিন্তু মাঝে অজানা কারণে উভয়ের মধ্যে দূরত্ব তৈরি হয়। এতে দুজনের জুটিবিহীন চলচ্চিত্রগুলো ব্যর্থ হতে থাকে। ফলে অপু চলচ্চিত্র থেকে দূরে সরে যান এবং অলস সময় কাটাতে মুটিয়ে যাওয়া শরীরের মেদ ঝরাতে থাকেন।

চলতি বছরের ঈদে মুক্তি পায় শাকিব-অপু জুটির অনেক আগে কাজ শেষ করা ‘মাই নেম ইজ খান’ চলচ্চিত্রটি। এটি ব্যাপক দর্শকপ্রিয়তা পেলে নির্মাতারা এ জুটিকে নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণে আবার আগ্রহী হয়ে ওঠেন। অল্প সময়ের মধ্যে অর্ধডজনেরও বেশি চলচ্চিত্রে চুক্তিবদ্ধ হন তারা এবং কাজ শুরু করেন।

তাছাড়া গত ঈদে এক টিভি অনুষ্ঠানে শাকিব বলেন, বিয়ে করব এমন একটি মেয়েকে যাকে মা পছন্দ করবেন এবং অবশ্যই সে চলচ্চিত্র দুনিয়ার বাইরের কেউ হবে। এমন কথায় অপুর মনের ভেতর নাকি কয়েকশ কিলোমিটার বেগে ঝড় বয়ে গেছে। এ ধাক্কা সামলিয়ে উঠতে না উঠতেই শাকিবের চলচ্চিত্রে তার পাশে অন্য নায়িকা। এতে শাকিবের ওপর চরম নাখোশ হয়েছেন অপু।

সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন, নিজেদের ভেতরকার সমস্ত রাগ অভিমান আর দুরত্ব ভুলতেই শাকিব অপু গোপন অভিসারে গিয়ে থাকতে পারেন। তবে নাম প্রকাশ না করা শর্তে শাকিবের ঐ ঘনিষ্ঠ পরিচালক বলছেন, আজ সকালেই শাকিব খানের দেশে ফেরার কথা। তবে অপু তাঁর সঙ্গে নেই। গ্রামের বাড়ি বগুড়ায় গিয়ে থাকতে পারেন। তাই, শাকিব অপুর খোঁজ মেলার আগ পর্যন্ত সব জল্পনা কল্পনাই থেকে যাচ্ছে।

Print Friendly, PDF & Email