CC News

ফুলবাড়ীতে ৫০ ভরি স্বর্নালঙ্কার উদ্ধার, ২ মহিলা আটক

 
 

Stoleখলিলুর রহমান, নাগেশ্বরী (কুড়িগ্রাম) : নারায়নগঞ্জের ফতুল্লা থানার এক ব্যবসায়ীর বাড়ীতে থেকে ঝিয়ের কাজ করার পর কৌশলে ৫০ ভরি স্বর্নালঙ্কার চুরি করে পালিয়ে এসেও রক্ষা পেলনা দুই মহিলা। ব্যবসায়ীর দায়ের করা মামলায় গত রোববার সন্ধ্যার সময় ফুলবাড়ী উপজেলার অনন্তপুর গ্রাম থেকে স্বর্নালঙ্কারসহ ওই দুই মহিলাকে আটক  করেছে পুলিশ।
মামলা সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার অনন্তপুর গ্রামের নওশের আলীর স্ত্রী মোসলেমা বেগম (৩৭) ও আলমগীর হোসেনের স্ত্রী মজিয়া বেগম (৪২) দীর্ঘ দিন ধরে নারায়নগঞ্জের ফতুল্লাপুর থানায় ঝিয়ের কাজ করার জন্য যায়। সেখানে মাসিক ২ হাজার টাকায় সিরাজ খানের বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস করতে থাকেন। তারা জামালপুর জেলার বাসিন্দা বলে ভুয়া পরিচয়ে কাজ শুরু করে । ওই মহিলারা  বিভিন্ন বাসায় ঝিয়ের কাজ করার এক পর্যায়ে পুলিশ লাইন আফাস নগর পাড়ার ধর্নাঢ্য ব্যবসায়ী হাজী আবুল হোসেন শিকদারের বাসায় মাসিক সাড়ে ৩ হাজার টাকার চুক্তিতে ঝিয়ের কাজ নেন। সেখানে ৪ মাস কাজ করার সুবাদে সুযোগ বুঝে ওই বাসার ওয়্যার ড্রপের ড্রয়ারে রক্ষিত বিভিন্ন ধরনের তৈরী স্বর্নালঙ্কার চুরি করে গত বুধবার পালিয়ে আসেন।
এ দিকে বাসার মালিক ব্যবহারের তাগিদে রক্ষিত স্বর্নালঙ্কার খুঁজতে গেলে চুরি যাওয়ার বিষয়টি ধরা পরে। পরে তারা ফতুল্লা থানায় মামলা করলে, ওই থানার ওসি ফুলবাড়ী থানায় বার্তা পাঠায় । মামলার আলোকে ফুলবাড়ী থানার এস আই সোহেল এর নেতৃত্বে এক দল পুলিশ অনন্তপুর গ্রামের ইদ্রিস আলীর বাড়ী থেকে তাদেরকে আটক করে।
মালিকের জামাতা নাসির উদ্দিন শিকদার জানান, সিঙ্গাপুর থেকে পরিবারের জন্য ১৫০ ভরি স্বর্নালঙ্কার ক্রয় করা হয়েছে। সেখান থেকে আংশিক স্বর্নালঙ্কার চুরি করে তারা পালিয়ে আসে।
এ ব্যাপারে ফুলবাড়ী থানার অফিসার ইনর্চাজ (ওসি) বজলুর রশীদ জানান, ফতুল্লা থানার এস আই আলমঙ্গীর হোসেনেরর কাছে আসামীদেরকে হস্তান্তর করা হয়েছে ।

Print Friendly, PDF & Email