CC News

মাহমুদউল্লাহর ঘূর্ণিতে ওয়ালটনের জয়

 
 

w-1120140121171138ঢাকা : রুবেল হোসেনকে সাজঘরে ফেরত পাঠিয়ে প্রাইম ব্যাংক সাউথ জোনের বিপক্ষে জয় পেল ওয়ালটন সেন্ট্রাল জোন।
বিসিএলের দ্বিতীয় আসরে এটি তাদের প্রথম জয়। প্রথম ম্যাচে ইসলামী ব্যাংক ইস্ট জোনের বিপক্ষে ড্র করেছিল ওয়ালটন।
৩১০ রান তাড়া করতে নেমে প্রাইম ব্যাংক সাউথ জোন সব উইকেট হারিয়ে ২৭২ রান তুলতে সক্ষম হয়। ৩৭ রানের বড় ব্যাবধানে পরাজিত হয় তারা।
দলের হয়ে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ৫ উইকেট তুলে নেন। ইলিয়াস সানী নেন ৩ উইকেট। ১টি করে উইকেট নেন পেসার শাহাদাত হোসেন ও মোহাম্মদ শহীদ।
তৃতীয় দিনে ৩ উইকেটে ১৫৯ রান সংগ্রহ করে প্রাইম ব্যাংক। ক্রিজে অপরাজিত ছিলেন মিথুন আলী ও তাইজুল ইসলাম।
জয় থেকে ১৫১ রান পিছিয়ে থেকে চতুর্থ দিন আজ ব্যাটিং শুরু করে প্রাইম ব্যাংক। স্কোরবোর্ডে ৮ রান যোগ হতেই ইলিয়াস সানীর বলে সাজঘরে ফেরেন মিথুন আলী। ১৪ রানে সরাসরি বোল্ড হন তিনি। ক্রিজে আসা নতুন ব্যাটসম্যান শুভাগত হোমকেও টিকতে দেননি সানী। মাত্র ১ রানে আউট হন শুভাগত।
ষষ্ঠ উইকেটে প্রতিরোধ গড়ে তোলে সাউথ জোন। জিয়াউর রহমান ও তাইবুর পারভেজ দলকে ২০৮ রান পর্যন্ত টেনে নিয়ে যান। এরপর পেসার শহীদ তাইবুর পারভেজকে উইকেটের পেছনে থাকা নুরুল হাসানের হাতে তালুবন্দি করান। তাইবুর পারভেজের ব্যাট থেকে আসে ২৩ রান।
ক্রিজে এসে স্পিনার সোহাগ গাজী আক্রমণাত্মক হয়ে খেলেন। তাকে সঙ্গ দেন জিয়াউর রহমান। ৩২ রানের জুটি গড়েন সপ্তম উইকেটে।
শাহাদাত হোসেন রাজীব প্রথমবারের মতো বোলিংয়ে এসে তার উইকেট তুলে নেন। ৩১ বলে ২টি চার ও ২টি ছয়ে ২৩ রান করেন গাজী।
চা-বিরতির পর তৃতীয় ওভারে মাহমুদউল্লাহ বোলিংয়ে এসে আব্দুর রাজ্জাককে ফেরান। পরের গল্পটা রচনা করেন মাহমুদউল্লাহ। বলতে গেলে এক হাতেই ওয়ালটনকে জেতান তিনি।
প্রথমে জিয়াউর রহমানকে ৪৫ রানে সাজঘরে পাঠান। এরপর রুবেল হোসেনকে। ওয়ালটনের জয়ের পথে বাধা হয়ে দাঁড়ানো জিয়াউর রহমান ৭১ বলে ২টি চার ও ৪টি ছয়ে ৪৫ রান করেন।
এর আগে প্রথমে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন ওয়ালটন সেন্ট্রাল জোন সব উইকেট হারিয়ে সংগ্রহ করে ১৬৫ রান। জবাবে প্রাইম ব্যাংক সাউথ জোন ২৩০ রানে আটকে যায়। ওয়ালটনের হয়ে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ একাই নেন ৭ উইকেট।
৬৫ রানের লিড নেয় প্রাইম শিবির। পিছিয়ে থেকে ব্যাটিংয়ে নেমে ওয়ালটন দ্বিতীয় ইনিংসে ঘুরে দাঁড়ায়। ৩৭৪ রান করে তারা। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ১২৬ রান আসে মার্শাল আইয়ুবের ব্যাট থেকে। এ ছাড়া শামসুর রহমান শুভ ৬৫ ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ করেন ৪১ রান।
দুই ইনিংসে ১২ উইকেট নেওয়ায় ম্যাচ-সেরা নির্বাচিত হন ওয়ালটন সেন্ট্রাল জোনের অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

Print Friendly, PDF & Email