CC News

কলেজছাত্রীর অশ্লীল ভিডিও ধারণ, শিক্ষক গ্রেপ্তার

 
 
63452_1

সিসি নিউজ: রাজশাহীর পুঠিয়ার কলেজছাত্রীর অশ্লীল ভিডিও ধারণ করার অপরাধে এক কলেজ শিক্ষককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তার হওয়া ওই কলেজ শিক্ষকের নাম মহিদুল ইসলাম। তিনি উপজেলার পচামাড়িয়া ডিগ্রি কলেজের ব্যবসায় ব্যবস্থাপনা বিভাগের কম্পিউটার প্রদর্শক ও শিলমাড়িয়া ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি রহমত আলীর ছেলে। বুধবার বিকেলে পুঠিয়া থানা পুলিশ তাঁকে গ্রেপ্তার করে।
পুলিশ জানায়, গ্রেপ্তারকৃত কলেজশিক্ষক শহিদুলের শিলমাড়িয়া বাজারে একটি কম্পিউটারের মাধ্যমে ছবি প্রিন্ট করার দোকান আছে। সেখানে ছবি তুলতে যাওয়ার সুবাদে তাঁর সঙ্গে রাজশাহী কলেজের ওই ছাত্রীর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। এরপর প্রলোভন দিয়ে তাঁকে রাজশাহী নগরীর লক্ষ্মীপুর এলকার একটি আবাসিক হোটেলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে। এরপর সেই দৃশ্যটি ভিডিও ধারণ করে গত ১৫ জানুয়ারি থেকে এলাকায় মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ছড়াতে থাকে শহিদুল। এ নিয়ে মেয়েটি নিজেই বাদী হয়ে পুঠিয়া থানায় অভিযোগ করলে বুধবারবিকেলে পুলিশ গিয়ে শহিদুলকে গ্রেপ্তার করে। তবে ঘটনাটি রাজশাহী নগরীর রাজপাড়া থানা এলাকায় হওয়ায় তদন্তের জন্য তাঁকে ওই থানায় পাঠানো হয়েছে।
ওই ছাত্রীর চাচা অভিযোগ করে জানান, বিয়ের প্রলোভন দিয়ে নিয়ে গিয়ে তাঁর ভাতিজিকে ধর্ষণ করা হয়েছে। এরপর সেই ভিডিও চিত্র এলাকায় ছড়িয়ে দিয়ে পুনরায় ব্ল্যাকমেইল করার চেষ্টা করেছেন শিক্ষক শহিদুল।
পুঠিয়া থানার পুলিশ কর্মকর্তা আবু ওবাইদা খান কালের কণ্ঠকে বলেন, ওই শিক্ষক কম্পিউটারের মাধ্যমে স্টুডিও ব্যবসার আড়ালে এই ধরনের অপকর্ম করে আসছিলেন। গ্রেপ্তারের পর এগুলো বের হয়ে আসছে। তাঁর অপকর্মগুলো তদন্ত করে বের করা হবে।
উৎসঃ   কালের কন্ঠ
Print Friendly, PDF & Email