CC News

মাথাবিহীন লাশটি কবিরাজের

 
 

lashঢাকা: রাজধানীর পল্টনের রাজারবাগ ট্রাফিক ব্যারাকের ছাদে পাওয়া মাথাবিহিীন যুবকের লাশের পরিচয় পাওয়া গেছে। ওই যুবকের নাম নান্নু মুন্সি (৪২)। তিনি পেশায় কবিরাজ ছিলেন।

বুধবার বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে নিহতের ভগ্নীপতি জয়নাল আবেদিন ঢাকা মেডিকেল কলেজ মর্গে এসে তাঁর লাশ সনাক্ত করেন। তিনি জানান, টেলিভিশনে সংবাদ দেখে হাসপাতালে এসে নান্নু মুন্সির লাশ সনাক্ত করেন। এ সময় জয়নালের সঙ্গে তার স্ত্রী বিউটি বেগমও ছিলেন।

জয়নাল জানান, নান্নু মুন্সি পেশায় কবিরাজ। এ সূত্রে তাঁর সঙ্গে বিভিন্ন লোকজনের পরিচয় ছিল। গত রোববার পুলিশের গাড়ি চালক শওকতের স্ত্রীর চিকিৎসার জন্য নান্নু গ্রামের বাড়ি যশোরের ঝিকরগাছা থেকে ঢাকায় আসেন। এরপর সোমবার দুপুরে নান্নুর সঙ্গে মোবাইলে জয়নালের শেষ কথা হয়। পরে আর নান্নুর সঙ্গে শত চেষ্টা করেও ফোনে পাওয়া যায়নি। পরে টিভিতে খবর দেখে তিনি মর্গে এসে নান্নুর খুন হওয়ার বিষয়ে জানতে পারেন।

নান্নুর বাবার নাম শাহাবুদ্দিন মুন্সী। ১০ ভাইয়ের মধ্যে তিনি ৯ নম্বর। নান্নুর টুস্পা নাসের নামে এক মেয়ে ও রাব্বি এবং রাজ নামের দুই ছেলে সন্তান রয়েছে।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে পল্টনে ট্রাফিক ভবনের ছাদের পানির ট্যাঙ্কির সামনে থেকে একটি মাথাবিহীন লাশ উদ্ধার হয়। পরে অজ্ঞাত হিসাবে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক মর্গে পাঠায় পুলিশ।

Print Friendly, PDF & Email