CC News

দিনাজপুরে ৮ লাখ শিশুকে হাম-রুবেল টিকা দেয়া হবে

 
 

Tika-2মাহবুবুল হক খান, দিনাজপুর: দিনাজপুরে হাম-রুবেলা ক্যাম্পেইন-২০১৪ উপলক্ষে ৯ মাস থেকে ১৫ বছর বয়সী ৮ লাখ ৪৩ হাজার ৩১৪ জন শিশুকে হাম-রুবেলা টিকা ও শূন্য থেকে ৫ বছর বয়সী ৩ লাখ ৭৩ হাজার ৬৪৮ শিশুকে পোলিও টিকা খাওয়ানো হবে। ২৫ জানয়ারী হতে ১৩ ফেব্রুয়ারী ৩ সপ্তাহব্যাপী এ ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত হবে।
বৃহস্পতিবার দুপুরে সিভিল সার্জন অফিসের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে দিনাজপুর সিভিল সার্জন ডা. মোঃ মউদুদ হোসেন সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানান। সিভিল সার্জন ডা. মউদুদ হোসেন আরো জানান, দিনাজপুর জেলা ১৩ উপজেলায় টিকাদান কেন্দ্র রয়েছে ২ জাহার ৮১৮টি। এর মধ্যে নিয়মিত টিকাদান কেন্দ্র ২ হাজার ৫৭৬টি এবং অতিরিক্ত ২৪২টি। এ সব কেন্দ্রে স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মী ও স্বেচ্ছাসেবক মিলে মোট ১৪ হাজার ৯০ জন স্বেচ্চাসেবক কর্মী দায়িত্ব পালন করবে। এদের মধ্যে স্বাস্থ্য কর্মী ৩৩৯ জন, পরিবার পরিকল্পনা কর্মী ৪৬২ জন এবং স্বেচ্ছাসেবক কর্মী রয়েছেন ১৩ হাজার ২৮৯ জন। সকাল ৮টা হতে বিকেল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে এসব টিকাদান কেন্দ্রে স্বেচ্ছাসেবকরা দায়িত্ব পালন করবেন।
সিভিল সার্জন আরো জানান, সরকার নিয়মিত টিকাদানের পাশাপাশি হাম দূরীকরণ ও রুবেলা নিয়ন্ত্রনের লক্ষ্যকে সামনে রেখে পূর্বে হাম বা এমআর টিকা পেয়ে থাকলেও ৯ মাস থেকে ১৫ বছর বয়সী সকল শিশুকে ১ ডোজ এমআর টিকা প্রদানের মাধ্যমে হাম-রুবেলা টিকাদান ক্যাম্পেইন পরিচালানা করছে।
ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. নুরুল হুদা জানান, প্রতিদিন কোন না কোন শিশুর মৃত্যু হচ্ছে। আর টিকা দেয়ার ফলে কোন শিশুর মৃত্যু হলে এই টিকা সম্পর্কে যাতে কোন নেতিবাচক ধারনার সৃষ্টি না হয় সে ব্যাপারে সাংবাদিকসহ সকলকে সচিতন থাকতে হবে। তিনি বলেন, গর্ভবর্তী মায়ের গর্ভের ৩ মায়ের মধ্যে হাম-রুবেলায় আক্রান্ত হয়ে থাকে। গর্ভবর্তী মা হাম-রুবেলায় আক্রান্ত হলে ৯০ ভাগ শিশু জন্মগত ত্রুটি নিয়ে জন্মগ্রহন করবে। এতে করে অনেক শিশু প্রতিবন্ধী বধির ও বোবা হয়ে জন্মগ্রহন করবে। তাই মেয়েদের হাম-রুবেলা টিকাদানের ব্যাপারে বেশী যতœবান হতে হবে।
পোলিওমুক্ত অবস্থা বজায় রাখার পাশাপাশি হাম ও রুবেলার মতো মারাত্মক রোগের প্রকোপ কমিয়ে আনার লক্ষ্যে উদ্দিষ্ট জনগোষ্ঠি বিবেচনা করে এবং টিকাদান কার্যক্রমকে সহজতর করার জন্য হাম ও রুবেলা টিকাদান ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত হবে। এ কর্মসূচী সফল করতে সিভিল সার্জন ডা. মউদুদ হোসেন সাংবাদিক, মসজিদের ইমাম, স্থানীয় জনপ্রতিনিধিসহ সকল মহলের সহযেগিতা কামনা করেছেন।
অনুষ্ঠানে ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মোঃ নুরুল হুদা, সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিকেল অফিসার ডাঃ মাসতুরা বেগমসহ অন্যান্য কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

লিয়াকতের স্মরণে বঙ্গবন্ধু শিশু-কিশোর মেলার সভা
সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ও বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলা দিনাজপুর জেলা শাখার প্রতিষ্ঠাতা সদস্য এবং জেলা কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক লিয়াকত আলী স্মরনে স্মরন সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
বৃহস্পতিবার সকালে বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলা দিনাজপুর জেলা কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত স্মরন সভায় সভাপতিত্ব করেন বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলার সভাপতি শাহজাহান নভেল। সভার শুরুত্বে লিয়াকত চৌধুরীর আত্মার মাগফেরাত কামনা করে ১ মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। বক্তব্য রাখেন বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলার প্রতিষ্ঠাতা উপদেষ্টা-আবু তাহের চৌধুরী (বুলু), কেন্দ্রীয় মেলার সাধারণ সম্পাদক মো. মনিরুজ্জামান জুয়েল, জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক  আবুল কাশেম লিটন, মেলার সদস্য প্রদীপ কুমার ঘোষ, জয়ন্তু কুমার ঘোষ, জাকিয়া তাবাসসুম জুঁই, বেলাল হোসেন, রিনা, সন্তোষ, এসএনআকাশ, সাগর, আবুল কালাম প্রমুখ। শোকসভা শেষে মরহুম লিয়াকত চৌধুরীর রুহের মাগফিরাত কামনা করে মুনাজাত করা হয়।

Print Friendly, PDF & Email