CC News

ডোমারে ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে মন্দিরের জমি দখলের অভিযোগ

 
 

নীলফামারী প্রতিনিধি: নীলফামারীতে সংখ্যালঘু সম্প্রাদায়ের হরিসভা মন্দিরের হরিসভা মন্দিরের জমি দখল করেছে ইউনিয়ন পরিষদের এক সদস্য। এ নিয়ে এলাকায় ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে জেলার ডোমার উপজেলার পাঙ্গা মটুকপুর ইউনিয়নের মৌজা পাঙ্গা লালা পাড়া গ্রামে। এ নিয়ে ভুক্তভোগীরা সরকারের বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ দায়ের করেছে।

দায়ের করা অভিযোগে জানা যায়, ওই এলাকার মৌজা-পাঙ্গা, জেএল নং ২৯, সিএস খতিয়ান নং-১১২৬ ও এসএ খতিয়ান নং ১১৮৪ এর ৪৫৪৫ নং দাগে ০৬ শতাংশ ও ৪৫৪৭ দাগে ৪৩ শতাংশ জমি হরিসভা মন্দির ও হিন্দু সাধারনের ব্যাবহারের জন্য নথিভুক্ত হয়েছে। যা দীর্ঘদিন ধরে হিন্দু সম্প্রাদায়ের লোকজন ব্যাবহার করে আসছিলেন। এক পর্যায়ে ওই জমির উপর লোলুপ দৃষ্টি পড়ে স্থানীয় আবু তালেবের ছেলে ইউপি সদস্য নুর আমিনের। তিনি তার সাঙ্গ পাঙ্গ দিয়ে জমিটি দখল করে নেয়। এ নিয়ে সংখ্যালঘু সম্প্রাদায়ের লোকজন মন্দিরের জমি উদ্ধারের জন্য স্থানীয়ভাবে একাধিকবার শালিস বৈঠকে আপোষ মীমাংসার চেষ্টা করে বার বার ব্যার্থ হয়েছে। এমনকি এ নিয়ে জমি দখলকারী নুর আমিন গং এর পক্ষ হতে নানা ধরনের হুমকি ভয়ভীতি দেখানো হয়েছে বলে অভিযোগে প্রকাশ। এ নিয়ে সংখ্যালঘু সম্প্রাদায়ের লোকজন এখন নানা আতংকে রয়েছেন। তারা সরকারের যথাযথ কতৃপক্ষের কাছে হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

এ ব্যাপারে জমি দখলকারী ইউপি সদস্য নুর আমিন ওই জমি আদালতের রায়ের প্রেক্ষিতে কিনে নিয়েছেন বলে সাংবাদিকদের কাছে দাবী করলেও কোন প্রকার কাগজ পত্র দেখাতে পারেননি।

এ ব্যাপারে ডোমার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোকছেদ আলী অভিযোগ প্রাপ্তির বিষয়টি স্বীকার করেন।

Print Friendly