CC News

ঝিনাইদহে গাছের সঙ্গে বাসের ধাক্কায় নিহত ৩

 
 

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি : ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সঙ্গে বাসের ধাক্কা লাগার ঘটনায় ৩ জন নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে কমপেক্ষ ৩৫ জন। আহতদের ৮ জনকে যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৮ মে) দুপুর দেড়টার দিকে ঝিনাইদহের কালীগঞ্জের বৈশাখী তেল পাম্প এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- কালীগঞ্জ পৌরসভার বলিদাপাড়া গ্রামের মৃত ইবাদত হোসেনের ছেলে ইব্রাহিম হোসেন (৬০), কালীগঞ্জ মধুগঞ্জ বাজার মহিলা কলেজ পাড়ার আমিনুল ইসলাম (৫০) ও অজ্ঞাত এক মহিলা।

স্থানীয়রা জানায়, যশোর থেকে কালীগঞ্জগামী শাপলা পরিবহনের (সোনালী লিখন) একটি বাস (পাবনা-বা-১১-০০৭৮) দ্রুতগতিতে চলার কারণে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি সাইকেল আরোহীকে চাপা দিয়ে পাশ্ববর্তী একটি কড়াইগাছে ধাক্কা খায়। ধাক্কায় বাসের সামনের অংশ দুমড়েমুচড়ে যায়। এতে তিন জন নিহত হয় ও কমপেক্ষ ৩৫ জন বাসযাত্রী আহত হয়। আহতদের ফায়ার সার্ভিস কর্মী ও স্থানীয়রা উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমেপ্লেক্সে নিয়ে যায়।

এদিকে দুর্ঘটনার সংবাদ পেয়ে হাসপাতালে ছুটে যান ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনার।

কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের টিএইচএস প্রফুল্ল কুমার মজুমদার জানান, হাসপাতালে প্রায় ৩৫ জনকে আনা হয়েছে। এর মধ্যে ৮ জনের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাদের যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

চিকিৎসাধীন আহত বাসের যাত্রী জিল্লুর রহমান বলেন, ‘চালক বেপরোয়া গতিতে গাড়ি চালাচ্ছিলেন। বাসটি চুরামনকাটি এলাকায় একবার দুর্ঘটনার শিকার হয়। যাত্রীরা চালককে ধীরে চালানোর অনুরোধও করেছিলেন। কিন্তু চালক যাত্রীদের কথা শোনেননি। তিনি বেপরোয়া গতিতে চালিয়ে যাচ্ছিলেন। কালীগঞ্জের বৈশাখী তেলপাম্প এলাকায় পৌঁছলে গাছের সঙ্গে ধাক্কা লাগে বাসটির।’

যশোর কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম আজমল হুদা বলেন, ‘ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৩ জনের লাশ যশোর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে রয়েছে।’

এর আগে গত ৯ মে যশোর-ঝিনাইদহ সড়কে এক ভয়াবহ সড়ক দুর্ঘটনায় ৬ জন নিহত ও ৩৫ জন আহত হন।

 

Print Friendly