CC News

মৌলভীবাজারের কালেঙ্গায় রিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের সভা

 
 

প্রেস বিজ্ঞপ্তি: মৌলভীবাজারের জেলা রিকশা শ্রমিক ইউনিয়ন রেজিঃ নং চট্টঃ২৪৫৩ এর কালেঙ্গা আঞ্চলিক কমিটির উদ্যোগে এক সভা ১৭ মে রাত ৮ টার সময় আঞ্চলিক কমিটির সভাপতি মোঃ শাহজাহান আলীর সভাপতিত্বে কালেঙ্গায় অনুষ্ঠিত হয়। মহান মে দিবসের মাসব্যাপী কর্মসূচি অংশ হিসেবে আয়োজিত এই সভায় মহান মে দিবসের ঐতিহাসিক তাৎপর্য তুলে ধরে লিখিত প্রবন্ধ পাঠ করেন ছাত্রনেতা রবিউল ইসলাম। সভায় অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন সংঘ মৌলভীবাজার জেলা কমিটির সাংস্কৃতিক সম্পাদক অমলেশ শর্ম্মা ও জেলা রিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি সোহেল আহমেদ। সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন রিকশা শ্রমিক ইউনিয়ন জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোঃ দুলাল আহমেদ, কালেঙ্গা আঞ্চলিক কমিটির সহ-সাধারণ সম্পাদক মোঃ মাহমুদুদর রহমান, কোষাধ্যক্ষ ইদ্রিস আলী, সদস্য আব্দুল জব্বার, মালু মিয়া, সিদ্দিক মিয়া প্রমূখ।

সভায় বক্তারা মহান মে দিবসের সংগ্রামী চেতনাকে ধারণ করে একটি শোষণহীন সমাজব্যবস্থা কায়েমের লক্ষ্যে সংগঠন-সংগ্রামকে অগ্রসর করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। সভায় সাম্প্রতিক নিত্যপণ্যের মূল্য বৃদ্ধিতে গভীর উদ্বেগ ও প্রতিবাদ জানিয়ে বক্তারা বলেন অকাল বন্যার অজুহাতে মোটা চালের মূল্য কেজি প্রতি ৪৫-৪৮ টাকা করার পর আসন্ন রমজান মাসকে সামনে রেখে আড়তদার-মজুতদাররা সিন্ডিকেটের মাধ্যমে পরিকল্পতিভাবে ছোয়া, ডাল, তেল, লবন, চিনিসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিষপত্রের মূল্যবৃদ্ধি করে জনগণের পকেট কাটছে। সকাররের মন্ত্রীরা নিত্যপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির বিরুদ্ধে লোকদেখানো “কঠোর হুশিয়ারি” উচ্চারণ করলেও কার্যক্ষেত্রে আড়তদার-মজুতদাররা সরকারের যোগসাজসে মূল্যবৃদ্ধি ঘটিয়ে লুটপাট করছে। তা না হলে সরকার নিত্যপণ্যের পর্যাপ্ত মজুত থাকার কথা বলার পরও কি করে বাজারে দ্রব্য মূল্য বৃদ্ধি পাচ্ছে?
সভা থেকে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম কমানো, বর্তমান বাজারদরের সাথে সংগতিপূর্ণভাবে ন্যায্য ভাড়ার তালিকা প্রদান, শহরের সুবিধাজনক স্থানে স্থায়ী রিকশা স্ট্যান্ড স্থাপন, রিকশা শ্রমিকদের উপর জুলুম অত্যাচার বন্ধ, স্বল্পমূল্যে রেশনিং চালু, শ্রীমঙ্গলে স্থায়ী শ্রম আদালত প্রতিষ্ঠা ও যুগ্ম-শ্রম পরিচালকের কার্যালয় স্থাপনের জোর দাবি করা হয়।

 

Print Friendly