CC News

নীলফামারীতে বাঁধ রক্ষায় বিএনপির নেতাকর্মীরা

 
 

বিশেষ প্রতিনিধি, নীলফামারী। এবার বাঁধ রক্ষায় কাজ করলো উপজেলা বিএনপি নেতারা। সাথে ছিলেন ছাত্রদল, যুবদল, কৃষকদল ও স্বেচ্ছাসেবকদলের নেতারাও।
রবিবার দুপুর থেকে বিকেল পর্যন্ত ডিমলা উপজেলার টেপাখড়িবাড়ি ইউনিয়নের চরখড়িবাড়িতে স্বেচ্ছাশ্রমে নির্মিত ২০০০ মিটার বালুর বাঁধ রক্ষায় নানান কাজে অংশগ্রহণ গ্রহণ করেন তারা।
দলীয় সুত্র জানায়, আড়ে আট হাজার প্লাস্টিকের বস্তা নিয়ে সেখানে পৌঁছান নেতা কর্মীরা। কেউবা বস্তায় বালু ভরে বাঁধের কিনারে বাঁেশর পাইলিং করে স্তুপ তৈরি করে দেন, কেউ বালু উত্তোলন আর কেউ সুতলি দিয়ে বাঁধার কাজ করেন।
স্বেচ্ছাশ্রমের বাঁধ রক্ষার কর্মসুচীতে নেতৃত্ব দেন ডিমলা উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি অধ্যাপক রইসুল আলম চৌধুরী।
কর্মসুচীতে অংশগ্রহণ করেন উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, ছাত্রদলের সভাপতি স্বপনুজ্জামান স্বপন, যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক রফিকুল ইসলাম, স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি আতিকুর রহমান ও সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল হাকিম, কৃষকদলের সহ-সভাপতি মাসুদুজ্জামান মাসুদ প্রমুখ।
উপজেলা বিএনপির সভাপতি অধ্যাপক রইসুল আলম চৌধুরী জানান, টেপাখড়িবাড়ি ইউনিয়নের চরখড়িগ্রামে বালুর বাঁধটি রক্ষা করছে দুই গ্রামের ২০হাজার মানুষকে। তিস্তা নদীতে পানির প্রবাহেও যাতে বাঁধটি ক্ষতি না হয় সেজন্য স্থানীয়দের সাথে আমরাও দলগত ভাবে বাঁধ রক্ষার কর্মসুচীতে যোগ দিয়েছি। যাতে করে রক্ষা পায় এলাকার মানুষ।
তিনি জানান স্বেচ্ছাশ্রমের কর্মসুচীতে দলের শতাধিক নেতা কর্মী অংশগ্রহণ করেন।
প্রসঙ্গত তিন দফায় তিস্তা নদীর পানি বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হওয়ায় টেপাখড়িবাড়ি ইউনিয়নের চরখড়িবাড়ি ও পুর্ব খড়িবাড়ি গ্রামের উপর দিয়ে নির্মিত বালুর বাঁধটি হুমকীর মধ্যে পড়েছে।
বাঁধটি যাতে রক্ষা করা যায় সেজন্য সংসদ সদস্য, জেলা পরিষদ, উপজেলা পরিষদ, ইউনিয়ন পরিষদ, আওয়ামীলীগ, ছাত্রলীগসহ বিভিন্ন সহযোগীতার মাধ্যমে স্বেচ্ছাশ্রমে কাজ করছেন বিভিন্ন জন।

Print Friendly, PDF & Email