CC News

কাহারোলে ডিজিটাল সেন্টারের সেবা জনগণের দোরগোড়ায়

 
 

কাহারোল (দিনাজপুর) প্রতিনিধি: বর্তমান সরকারের আমলে তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছাল তথ্য ও সেবা। জনগণের দোরগড়ায় সেবা পৌঁছে দিতে সরকার দেশের প্রত্যেকটি ইউনিয়নে গড়ে তুলেছেন ডিজিটাল সেন্টার। দিনাজপুর জেলার কাহারোল উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার গুলোতে সেবা পাচ্ছে সাধারণ মানুষ। তাদের সময় অপচয় বা টাকা খরচ করে আর শহরে যেতে হয় না। ঘরে বসেই সব ধরনের সেবা নিতে পাচ্ছে উপজেলার লোকজন। উপজেলার ৬টি ইউনিয়নে দেওয়া সেবা গুলোর মধ্যে রয়েছে, জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন সনদ, কৃষকের যাবতীয় জমির কাগজপত্রাদি, কম্পিউটার কম্পোজ, ওয়ারিান সনদ, প্রত্যয়ন পত্র, ও প্রিন্ট, ছবি তোলা, শিক্ষার্থীদের অনলাইনের মাধমে মার্কশীর্ট, বিভিন্ন কাগজপত্রাদি লেমিনেটিং করা, ফটোকপি করা, পাসপোর্ট ফরম পূরণ করা, ই-মেইল, ইন্টারেট, চাকুরী তথ্য প্রাপ্তি ও আবেদন করা, কম্পিউটার প্রশিক্ষণ সহ এজেন্ট ব্যাংকিং ইত্যাদি।
কাহারোল উপজেলা সদরে অবস্থিত ৩নং মুকুন্দপুর ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারএ সুবিধা গুলো দিয়ে আসছে। বর্তমান সরকারের যুগান্তকারী পদক্ষেপ হিসেবে ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার গড়ে তোলার কারণে ঘরে বসেই সেই সেবা পাচ্ছেন সাধারণ মানুষ। এসব সেবা প্রাপ্তিকে খুশি মনে জানান মেয়ের জন্ম নিবন্ধন সনদ নিতে আসা মুকুন্দপুর ইউনিয়নের ডহন্ডা গ্রামের রিক্তা খাতুন, রিপা খাতুন, ঋণের জন্য আবেদন করতে আসা মুকুন্দপুরের সুশিল চন্দ্র রায়, ফটোকপি করতে আসা নিজিয়া গ্রামের আব্দুল ওয়াজেদ, জন্ম সনদ নিতে আসা সাবেক ইউ,পি সদস্য কায়দে আজম।
গত ৫ বছর যাবৎ মুকুন্দপুর ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার থেকে প্রায় ২ লক্ষ্যাধিক মানুষকে বিভিন্ন ধরনের সেবা প্রদান করা হয়েছে বলেন, মুকুন্দপুর ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোক্তা সুমন মিয়া। ইউনিয়ন উদ্যোক্তার দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি কম্পিউটার ট্রেনিং প্রদানের মাধ্যমে মাসে ২০/২৫ হাজার টাকা আয় করে বলে সুমন মিয়া জানান। ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারে বর্তমানে ৪/৫ জন শিক্ষার্থী সহ ৫০/৬০ জনকে কম্পিউটার বিষয়ে প্রশিক্ষণ নিয়েছেন।
সাধারণ মানুষের বিভিন্ন সেবা প্রদানের পাশাপাশি ডিজিটাল সেন্টারে কম্পিউটার প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে বেকার যুব সমাজ দক্ষতা অর্জন করছে এবং বিভিন্ন আয় বর্ধনমূলক কাজে অংশ গ্রহণ করতে পারছেন।
মুকুন্দপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এ,কে,এম ফারুক বলেন, বিভিন্ন এলাকার লোকজন এখানে আসে সেবা নিচ্ছে। ডিজিটাল সেন্টারের মাধ্যমে সব রকমের তথ্য পাওয়ার কারণে উন্নয়নের মহাসড়কে উঠেছে প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষ।
কাহারোল উপজেলা নির্বাহী অফিসারের মোহাম্মদ আসলাম মোল্লা’র নেতৃত্বে পরিচালিত আই,সি,টি বিভাগ ৬টি ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের কার্যক্রম সার্বক্ষনিক মনিটরিং করছেন।

Print Friendly, PDF & Email