CC News

দিনাজপুরে খামারীদের সাথে প্রাণিসম্পদ বিভাগের মতবিনিময়

 
 

দিনাজপুর প্রতিনিধি ॥ দিনাজপুরে প্রাণিসম্পদ বিভাগের কর্মকর্তা ও গবাদিপশু হৃষ্টপুষ্টকরণ খামারীদের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। জেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তর এই মতবিনিময় সভার আয়োজন করে।
শুক্রবার (১১ জুলাই) বিকেলে শহরের বালুবাড়ীস্থ কৃষিসম্প্রসারণ অফিস মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত রংপুর প্রাণিসম্পদ বিভাগের উপ-পরিচালক ডা. মো. মাহবুবুর রহমান’র সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ডা. মো. আইনুল হক। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সমাজভিত্তিক ও বাণিজ্যিক খামারে দেশী ভেড়ার উন্নয়ন ও সংরক্ষণ প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক ডা. মো. হাবিবুর রহমান, ব্রীড আপগ্রেটেশন থ্রুু প্রজনী টেষ্ট প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক ডা. মো. লুৎফুর রহমান।
সদর উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. শাহিন আলম’র সঞ্চালনায় সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. আবুল কালাম আজাদ। খামারীদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিরলের খামারী মো. মতিউর রহমান, বীরগঞ্জের মো. মনিরুল ইসলাম, ঘোড়াঘাটের মো. জিয়াউর রহমান, সদরের মো. তুহিন আকতার তুহিন, মো. সোহাগ ও প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তাদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বীরগঞ্জ প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. আলতাফ হোসেন বাশেরহাট সরকারী হাঁস-মুরগির খামারের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কৃষিবিদ মো. মাহবুবুর রহমান প্রমূখ। মতবিনিময় সভায় দিনাজপুর জেলা প্রাণিসম্পদ হাসপাতালের সার্জন ডা. মো. আব্দুল জলিলসহ জেলার ১৩ উপজেলার প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ও জেলার বিভিন্ন উপজেলা হতে আগত খামারী এবং প্রাণিসম্পদ বিভাগের অন্যান্য কর্মকর্তা অংশগ্রহণ করেন।
সভায় প্রধান অতিথি প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ডা. মো. আইনুল হক দিনাজপুরে প্রাণিসম্পদে বিপ্লব ঘটেছে উল্লেখ করে বলেন, দিনাজপুর থেকে কাটারীভোগ চাল ও লিচুর ন্যায় এবার দুধ ও মাংসও দেশের বিভিন্ন স্থানে প্রেরণ করা হবে। তিনি বলেন, বর্তমানে বাংলাদেশ থেকে দেশের ৭/৮টি দেশে গরু ও খাসির মাংস রপ্তানী করা হচ্ছে। ২০১৮ সালের শেষে সৌদি আরব ও মালশিয়াসহ পৃথিবীর অন্যান্য দেশে মাংস রপ্তানী করা হবে। ডা. আইনুল হক আরো বলেন, আগে বাড়ী বাড়ী গরু থাকতো, কিন্তু বর্তমানে এর চিত্র ভিন্ন। এখন লাভ-ক্ষতির কথা চিন্তা করে গরু পালন করা হয়। তিনি দুধ ও ডিম থেকে উৎপাদিত পণ্যের গুনগতমান নিশ্চিতকরণ, ব্যাংক লোনে সুদের হার কামানো, ব্যাংক লোন প্রাপ্তিতে সমস্যা দুরীকরণসহ খামারীদের বিভিন্ন সমস্যার কথা শুনেন এবং সমাধানের আশ্বাস দেন। এছাড়া দিনাজপুরে খামারীদের সুবিধার্থে একটি দুধ প্রক্রিয়াজাতকরণ ইউনিট ও অত্যাধুনিক ল্যাব প্রতিষ্ঠার ঘোষণা দেন।
এর আগে প্রধান অতিথি ডা. মো. আইনুল হক চিরিরবন্দর উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তরের আয়োজনে সমাজভিত্তিক ও বানিজ্যিক খামারে দেশী ভেড়ার উন্নয়ন ও সংরক্ষন প্রকল্পের আওতায় ভেড়া পালনকারীদের ৫ দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কোর্সের সনদপত্র বিতরন ও নির্বাচিত ২৫ জন দুগ্ধ খামারীর মাঝে মোট ১ লক্ষ ৩৫ হাজার অনুদানের টাকা বিতরন করেন। সব শেষে প্রধান অতিথি সদর উপজেলার নয়নপুরে একটি খামার এবং দিনাজপুর থেকে প্রকাশিত “সাপ্তাহিক কৃষি ও আমিষ” পত্রিকার অফিস পরিদর্শন করেন।

Print Friendly, PDF & Email