CC News

দেবরের ছুরিকাঘাতে প্রবাসীর স্ত্রী খুন

 
 

চাঁদপুর প্রতিনিধি: সদর উপজেলার বাগাদী ইউনিয়নের মমিনপুর গ্রামে পারিবারিক কলহের জের ধরে দেবর মো. ইয়াছিন মিজির (২৮) ছুরিকাঘাতে প্রবাসীর স্ত্রী শারমীন বেগম (২০) নিহত হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে ওই গ্রামের মিজি বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।  নিহত শারমীন অভিযুক্ত ইয়াছিনের বড় ভাই প্রবাসী ইউসুফ মিজির স্ত্রী এবং পার্শ্ববর্তী ফরিদগঞ্জ উপজেলার কেওরা গ্রামের তাজুল ইসলামের মেয়ে। ঘটনার পর রাত সাড়ে ১১টায় অভিযুক্ত ইয়াছিন মিজিকে স্থানীয়রা আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে।

নিহতের স্বামী ইউসুফ মিজি জানান, রমজানের এক মাস আগে তিনি সৌদি আরব থেকে ছুটিতে বাড়িতে আসেন। অভিযুক্ত ইয়াছিন বাহরাইন থেকে গত রমজানের পর দেশে ফিরে এসেই পারিবারিক কলহে জড়িয়ে পড়েন। এর আগে তাকে সৌদি আরবে নেয়ার কথা ছিল, কিন্তু ভিসা দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার কারণে তিনি ইয়াছিনকে নিতে পারেননি। এ নিয়ে ইয়াসিন প্রায়ই তার ভাবী শারমিনকে সন্দেহ করতেন। তিনি স্বামী ইউসুফকে প্ররোচণা দিচ্ছেন এমনটা ধারণা ছিল ইয়াসিনের।

শারমীনের শাশুড়ি নুরজাহান বেগম জানান, তারা যৌথ পরিবারে বাস করেন,  ঘটনার পূর্বে তারা সবাই একসাথে রাতের খাবার খান। খাওয়া শেষে স্ত্রী শারমিনের অনুরোধে স্বামী ইউসুফ বাড়ির পাশের দোকান থেকে হাত ধোয়ার সাবান আনতে যান। এর ফাঁকে ইয়াসিন ঘরে থাকা ধারালো ছুরি দিয়ে তার অন্তঃসত্ত্বা ভাবির পেটে আঘাত করলে নাড়িভুড়ি বের হয়ে যায়। শারমীনের আর্তচিৎকারে রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

হাসপাতালের কর্মরত চিকিৎসক ডা. রায়হান মো. ওমর ফারুক বলেন, হাসপাতালে আনার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে। নিহতের পেটে ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে। ধারণা করা যাচ্ছে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে তার মৃত্যু হয়েছে।

চাঁদপুর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মফিজুল ইসলাম বলেন, ঘটনার পরপরই স্থানীয়রা অভিযুক্তকে আটক করেছে। তাকে আটক করে থানায় আনা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email