CC News

শৈলকুপায় প্রধান শিক্ষক কর্তৃক শিক্ষিকাকে ধর্ষনের চেষ্টা

 
 

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি: ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার ধলহরাচন্দ্র ইউনিয়নের কাশিনাথপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক অতুল কুমার সরকারের বিরুদ্ধে তার এক সহকর্মীকে ধর্ষন চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। বিষয়টি নিয়ে শৈলকুপার শিক্ষঙ্গনে তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকালে এ নিয়ে শৈলকুপা উপজেলা পরিষদের সমঝোতা বৈঠক করা হয়েছে। নির্যাতনের শিকার ওই স্কুল শিক্ষিকা ঘটনার পর থেকেই স্কুলে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছেন। তিনি বিচার না পেলে আত্মহত্যার হুমকী দিয়েছেন। শৈলকুপা উপজেলা শিক্ষা অফিসরার রেজাউল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, মৌখিক ভাবে কাশিনাথপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক শিক্ষিকা তার উপর নির্যাতনের কথা জানিয়েছেন। আমরা বিষয়টি তদন্ত করছি। সত্যতা পেলে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। কাশিনাথপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি প্রফুল্ল কুমার জানান, ঘটনাটি সত্য কারণ গত ১২ সেপ্টম্বর থেকে ওই শিক্ষিকা লজ্জার কারণে স্কুলে আসছেন না।

তার পরিবর্তে মালিথিয়া সরকারী প্রাতমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা আসমা আক্তারীকে সাময়িক দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। নির্যাতনে শিকার ওই শিক্ষিকা জানান. গত ১১ সেপ্টেম্বর সোমবার স্কুল ছুটির পর প্রধান শিক্ষক অতুল কুমার সরকার তাকে কিছুক্ষন থেকে যেতে বলেন। স্কুল থেকে সহকর্মী শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা বের হয়ে গেলে তাকে ধর্ষনের চেষ্টা চালায়। এতে তার পরনের জাপা কাপড় ছিড়ে যায়। বিষয়টি নিয়ে কাশিনাথপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক অতুল কুমার সরকার বলেন, ওই শিক্ষিকা বদলী হওয়ার জন্য তার বিরুদ্ধে দুর্নাম ছড়াচ্ছে। তিনি বলেন, আমি স্থানীয় চেয়ারম্যান মতিয়ার রহমান সাহেবকে বিষয়টি দেখার জন্য বলেছি। এ বিষয়ে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আতাউর রহমান বলেন, এই দুর্ঘটনার খবর উপজেলা শিক্ষা অফিসার আমাকে জানিয়েছেন। আমি বলেছি একটি তদন্ত রিপোর্ট তৈরী করে যৌন নির্যাতনের ঘটনাটি জানাতে। রিপোর্ট হাতে পেলেই আমি কঠোর ব্যবস্থা গ্রহন করবো।

Print Friendly, PDF & Email