CC News

শরীর থেকে ঘামের বদলে ঝরছে রক্ত !

 
 

সিসি ডেস্ক, ১৬ নভেম্বর: আমরা অনেক সময় প্রবচন হিসেবে ব্যবহার করি ‘রক্ত ঝরিয়ে অর্জন করেছি’। কিন্তু সত্যিকার অর্থে রক্ত ঝরাই না, বরং খুব পরিশ্রমসাধ্য কাজ হলে ঘাম ঝরাতে পারি। কিন্তু ইতালীও ২১ বছর বয়েসী এক নারী বিশেষ শারীরিক অবস্থার কারনে ঘামের সাথে রক্ত ঝরিয়ে থাকেন। এই রোগীর ডাক্তারের ভাষ্য অনুযায়ী রোগিনী তাঁর কাছে এসেছিলেন ‘কোনো রকম আঘাত ছাড়াই তাঁর মুখমন্ডল এবং হাত হতে রক্ত ঝরছে’ এই মর্মে। এই ঘটনা তিন বছর ধরে ঘটছে। পরীক্ষার মাধ্যমে নিশ্চিত হওয়া গেছে এই তরল রক্ত।

এই ধরনের অবস্থার কারণ? একটি ধোঁয়াশাময় পরিস্থিতি যার নাম দেওয়া হয়েছে হেমাটোহাইড্রোসিস। এই পরিস্থিতি নতুন নয়, বরং হাজার হাজার বছরের রেকর্ডে এর উল্লেখ আছে। আরিস্টটলের লেখা হতে এধরনের লক্ষণ পাওয়া যায়। যীশুখৃষ্টকে হত্যার আগেরদিন রাতে তার মুখমন্ডল হতে রক্ত ঝরেছে বলে উল্লেখ আছে। লিওনার্দো দ্যা ভিঞ্চিও যুদ্ধে যাওয়ার আগের দিন এক সৈন্যের শরীর হতে রক্ত ছুঁইয়ে পড়েছে বলে উল্লেখ করেছেন।

১৯৯৬ সালে দুজন চিকিৎসক সপ্তদশ শতক হতে ১৯৮০ সাল পর্যন্ত এধরনের প্রায় ৭৬ টি ঘটনা সংগ্রহ করে লিপিবদ্ধ করেছেন। ঐতিহাসিক ক্ষেত্রে বৈজ্ঞানিকভাবে এ ধরনের ঘটনা পর্যালোচনা করা হয় নি। কেবলমাত্র ২০১২ সালে এলভিয়ার হতে একটি বই প্রকাশিত হয়েছে যাতে উল্লেখ আছে বৈজ্ঞানিকভাবে হেমাটোহাইড্রোসিসের কোনো ঘটনা পর্যবেক্ষণ করা হয় নি।

তবে সাম্প্রতিক কালে এধরনের বেশ কিছু ঘটনা পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। ২০০৯ সালে গবেষক এবং ডাক্তারগণ ৭২ বছর বয়েসী এর বৃদ্ধের ক্ষেত্রে এ ধরনের ঘটনার উল্লেখ করেছেন। ২০১০ সলে ১৩ বছর বয়েসী এক কিশোর আর ২০১৩ সালে ১৮ বছর বয়েসী নারী এবং ১২ বছর বয়েসী এক কিশোরী এর ধরনের পরিস্থিতির শিকার হয়।

বর্তমানে ২১ বছর বয়েসী যে নারীর কথা বলা হচ্ছে তার লক্ষণের সাথে পূর্বোক্তদের লক্ষণে মিল রয়েছে। তিনি বলেন তাঁর রক্তক্ষরণের ঘটনার কোনো নির্দিষ্ট সময় নেই এবং ঘুমের মধ্যেও এধরনের ঘটনা ঘটে। আর এই ঘটনা এক থেকে পাঁচ মিনিট স্থায়ী হয়। তিনি উল্লেখ করেন, যখন মানসিকভাবে অস্থির থাকেন তখন এধরনের ঘটনা বেশী ঘটে। শারীরিক সমস্যার পাশাপাশি এধরনের উদ্বেগজনক লক্ষণে তিনি মানসিকভাবেও বিপর্যন্ত হয়ে পড়ছেন।

ডাক্তাররা এই রোগের কোনো কারণ আবিষ্কার করতে পারেন নি এমনকি শরীরের কোনো অস্বাভাবিকতাও আবিষ্কার করতে পারেন নি। আপাততঃ তাঁকে বিষন্নতারোধী এবং উচ্চরক্তচাপ প্রতিরোধের চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। এতে রোগীর অবস্থার কিছুটা উন্নতি হয়েছে বলে বিবৃত করা হয়েছে। বিজ্ঞান পত্রিকা

Print Friendly, PDF & Email