CC News

ছাতকে দু’দিন থেকে অর্ধশতাধিক বিদ্যালয় বন্ধ

 
 

চান মিয়া, ছাতক, ২০ নভেম্বর: ছাতকে দু’দিন ধরে সরকারি আইন লঙ্ঘন করে অর্ধশতাধিক বিদ্যালয়ে পাঠদান বন্ধ রাখার ঘটনায় উপজেলাজুড়ে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা ও অভিবাবক মহলে অসন্তেুাষ বিরাজ করছে। জানা যায়, রোববার ও সোমবার দুই দিন ধরে উপজেলার ১শ’ ৮২টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৯হাজার ৪শ’ ৭৮জন পরিক্ষার্থী সমাপনী পরিক্ষায় অংশ নেয়। এদের মধ্যে ৫শ’ ১১জন পরিক্ষার্থী অনুপস্থিত। ২৯টি কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত পরিক্ষার ডিউটিতে রয়েছেন ৩শ’ শিক্ষক-শিক্ষিকা। এদিকে সমাপনী পরিক্ষার অজুহাতে বাগবাড়ি মডেল, তাতিকোনা, হাদা চানপুরসহ অর্ধশতাধিক স্কুলে পাঠদান বন্ধ রাখায় হয়েছে।এ উপজেলার ৯শতাধিক শিক্ষক-শিক্ষিকাকে ব্যাপক অনিয়ম ও স্বজনপ্রীতির মাধ্যমে পরিক্ষার ডিউটি তালিকা বন্টন করায় এপরিস্থিতির দেখা দেয়। প্রতি স্কুল থেকে একজন অথবা দু’জন করে ডিউটির তালিকা করলে এভাবে বিদ্যালয়ে শিক্ষক সংকটও পাঠদান ব্যাহত হতো না বলে অভিজ্ঞমহল ধারনা করেছেন। শহরের মন্ডলীভোগ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক হেলালুজ্জামান জানান, স্কুল বন্ধ রাখা সরকারি কোন নীতিমালায় নেই। এজন্যে আমার বিদ্যালয়টি খোলা রেখে পাঠদান চালাচ্ছি। শিক্ষা অফিসার মানিক চন্দ্র দাস বলেন, শিক্ষক-শিক্ষিকারা সমাপনী পরিক্ষার ডিউটিতে চলে যাওয়ায় অনেক স্কুলে পাঠ দান বন্ধ রাখা হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ নাছির উল্লাহ খান প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোতে পাঠদান বন্ধ রাখার বিষয়ে তিনি অবগত নন বলে জানান। উপজেলা চেয়ারম্যান অলিউর রহমান চৌধুরি বকুল বিদ্যালয়ে পাঠদান বন্ধ রাখার ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করে সরকারি আইন লঙ্ঘনকারিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে কর্তৃপক্ষের প্রি জোর আহবান জানান।

 

Print Friendly, PDF & Email