CC News

নীলফামারীতে অগ্নিকান্ডে গবাদী পশুসহ ৪৮ ঘর ভষ্মিভুত

 
 

সিসি নিউজ, ১৩ ডিসেম্বর: ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে নীলফামারীর গোড়গ্রামে ২১টি পরিবারের সর্বস্ব ভষ্মিভুত হয়েছে। ৪৮টি ঘর ছাড়াও গবাদী পশু, নগদ টাকা পুড়ে ছাই হয়ে যায় অগ্নিকান্ডে।
মঙ্গলবার রাতে গোড়গ্রাম ইউনিয়নের বেগপাড়া এলাকার এনামুল হকের বাড়িতে বৈদ্যুতিক সর্ট সার্কিট থেকে অগ্নিকান্ডের সুত্রপাত হলে ওই ঘটনা ঘটে।
স্থানীয় ও ফায়ার সার্ভিস সুত্র জানায়, অগ্নিকান্ডে ২২টি বসত ঘর, ১৮টি রান্না ঘর, ৮টি গোয়াল ঘর, ৩টি খড়ের পুঞ্জ, ৩টি ধানের পুঞ্জ, নগদ দেড় লাখ টাকা ভষ্মিভুত হয় এছাড়া অগ্নিদ্বগ্ধ হয়ে মারা যায় ৬টি গরু ও ৪টি ছাগল।
গোড়গ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের ২নং ওয়ার্ড সদস্য ইয়াসিন আলী লিখন জানান, আগুনে সর্বস্ব হারিয়েছে পরিবারগুলো। কোন কিছু রক্ষা পায়নি আগুনের লেলিহান শিখায়।
তিনি বলেন, শ্রমজীবী মানুষ হওয়ায় কষ্টের সীমা থাকবে না তাদের। কনকনে শীতে দিন অতিক্রম করা এখন তাদের জন্য দুরুহ ব্যাপার হয়ে দাড়িয়েছে।
এদিকে রাত ১১টার দিকে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবুজার রহমান ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মামুন ভুইয়া।
সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মামুন ভুইয়া জানান, তাৎক্ষনিক ভাবে উপজেলা পরিষদ থেকে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোকে কম্বল, রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি থেকে থাকার জন্য তাবু এবং শুকনো খাবারের ব্যবস্থা করে দেয়া হয়েছে।
ফায়ার সার্ভিস সুত্র জানায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোর মধ্যে রয়েছে নুর উদ্দিন, রাহিদুল ইসলাম, মতিয়ার রহমান, এ্যালেয়ার রহমান, আবু বকর, অফিসার ইসলাম, এনামুল হক, শাহিনুর ইসলাম, আনিসুর রহমান, তহুজা বেগম, ওবায়দুল ইসলাম, বেগম বেওয়া, ফারুক হোসেন, ফজলুল হক ফজলু, রফিকুল ইসলাম, বুদারু মামুদ, মমিনুর রহমান, আহিদুল ইসলাম, সহিদুল ইসলাম ও আলেয়া বেগম।
ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স নীলফামারী স্টেশনের সিনিয়র স্টেশন অফিসার এনামুল হক জানান, খবর পেয়ে তাৎক্ষনিক ভাবে ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনা হয়।
প্রাথমিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্তদের প্রায় ১৩লাখ টাকার মালামাল ভষ্মিভুত হয়েছে বলে জানান তিনি।

 

Print Friendly, PDF & Email