CC News

দিনাজপুরে বিরল প্রজাতি’র দু’টো শকুন আটক

 
 

দিনাজপুর প্রতিনিধি, ২৩ ডিসেম্বর: দিনাজপুরে বিরল প্রজাতি’র দু’টো শকুন ধরা পড়েছে। হিমালয়ান গিফেন ভাউচার নামে বিরল প্রজাতির শকুন দু’টো সকালে বীরগঞ্জ উপজেলার শতগ্রাম ইউনিয়নের ঠকঠকিয়া পাড়ায় আসে উড়ে। তারপর শকুন দুইটিকে তীর ধনুক দিয়ে শিকারের চেষ্টা করে স্থানীয় ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর কিছু লোকজন। আহতাবস্থায় একটি শকুন ধরে জবাইও করে তারা। এ তথ্য দিয়েছেন,স্থানীয় বাসিন্দা শেখ মো. জাকির হোসেন।
ধাওয়া খেয়ে শারীরিক ভাবে অসুস্থ্য হয়ে অপর পাখীটি ঝড়বাড়ী কলেজ মোড় এলাকায় স্থানীয় প্রফুল্ল দেবনাথের বাগানে এসে পড়ে যায়।
পরে ওই এলাকার সুপেন দেবনাথসহ এলাকাবাসী শকুন পাখীটিকে উদ্ধার করে
ছেড়ে দিলেও দুর্বল হওয়ার উড়তে না পারায় যেতে পারেনি সেটি। পরে স্থানীয় শহিদুল ইসলামের বাড়িতে নিয়ে রাখা হয়। শতগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের গ্রাম্য পুলিশ এসে পাখীটিকে সেখান থেকে উদ্ধার করে নিয়ে যায়।
এ ব্যাপারের গ্রাম পুলিশের দফাদার মো. বাবুল হোসেন জানান, একটি শারীরিক ভাবে অসুস্থ ও আরেকটি জবাই করা অবস্থায় শকুন পাখী উদ্ধার করা হয়েছে। জীবিত পাখীটিকে অসুস্থ্য থাকার কারণে চিকিৎসা দিতে বীরগঞ্জ উপজেলা পশু হাসপাতালে হস্তান্তর করা হয়েছে।
বীরগঞ্জ উপজেলা প্রানীসম্পদ বিভাগের চিকিৎসক ডা. মো. ইউনুস আলী জানিয়েছেন, পাখীটি কোন কারণে আঘাত প্রাপ্ত হয়ে অসুস্থ্য হয়েছে। পাখীটিকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। পাখীটিকে বনবিভাগের কাছে হন্তানান্তর করার প্রক্রিয়া চলছে।
দিনাজপুর সামাজিক বন বিভাগের কর্মকর্তা এস.এম আব্দুস সালাম তুহিন জানান, শীতের সময় আমাদের দেশে অতিথি পাখীর আগমন ঘটে। এ কারণে এটি প্রতিবেশি দেশ হতে আমাদের দেশে আসতে পারে। শকুন পাখীটি দেখে প্রাথমিক ভাবে মনে হয়েছে এটি হিমালয়ান গিফেন ভাউচার প্রজাতির পাখী।

Print Friendly, PDF & Email