CC News

স্বাগত নতুন বছর ২০১৮

 
 

সিসি নিউজ, ০১ জানুয়ারি: স্বাগত ২০১৮। স্বাগত নতুন বছর। নতুন বছর মানেই নতুন আনন্দ আর নতুন পরিকল্পনা। দিনপঞ্জির পাতা অনুযায়ী, আমাদের জীবন থেকে বিদায় নিয়ে গেল ২০১৭ সাল। শুভ আগমন ২০১৮।

ভালোমন্দ মিশিয়ে পার হয়, প্রতিটি মানুষের জীবন। ২০১৭ সালও তার ব্যতিক্রম নয়। আমাদের কারো জীবনে এমন অনেক ঘটনা ঘটেছে যা খুব কষ্টকর, আবার একই সঙ্গে এমন ঘটনাও ঘটছে যা অনেক বেশি আনন্দের। হয়তো দুই ধরনের ঘটনাই আমাদের জীবনের অনেক কিছু বদলে দিয়েছে। আমাদের উচিত পুরনো দিনের দুঃখ, কষ্ট, গ্লানি, হতাশা, ব্যর্থতা- সব কিছু ভুলে ‍গিয়ে সামনের দিকে এগোনোর দৃঢ় প্রত্যয়ে অটুট থাকা।

আধুনিক গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডার ও জুলিয়ান ক্যালেন্ডারে জানুয়ারির ১ তারিখ থেকে শুরু হয় নতুন বছর। তবে ইংরেজি নতুন বছর উদযাপনের ধারণাটি আসে খ্রিষ্টপূর্ব ২০০০ অব্দে। তখন মেসোপটেমিয় সভ্যতার (বর্তমান ইরাক) লোকেরা নতুন বছর উদযাপন শুরু করে। তারা তাদের নিজস্ব গণনা বছরের প্রথম দিন নববর্ষ উদযাপন করতো।

তবে রোমে নতুন বছর পালনের প্রচলন শুরু হয় খ্রিষ্টপূর্ব ১৫৩ সালে। পরে খ্রিষ্টপূর্ব ৪৬ অব্দে সম্রাট জুলিয়াস সিজার একটি নতুন বর্ষপঞ্জিকার প্রচলন করেন। যা জুলিয়ান ক্যালেন্ডার নামে পরিচিত।

রোমে জুলিয়ান ক্যালেন্ডারের অন্তর্গত বছরের প্রথম দিনটি জানুস দেবতার উদ্দেশ্যে উৎসর্গ করা হয়। জানুস হলেন প্রবেশপথ বা সূচনার দেবতা। তার নাম অনুসারেই বছরের প্রথম মাসের নাম জানুয়ারি নামকরণ করা হয়।

এতো গেলো যিশুর জন্মের আগের কথা। যিশুখ্রিষ্টের জন্মের পর তার জন্মের বছর গণনা করে ১৫৮২ সালে পোপ ত্রয়োদশ গ্রেগরি এই ক্যালেন্ডারের নতুন সংস্কার করেন। যা গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডার নামে পরিচিত। বর্তমানে বিশ্বের বেশিরভাগ দেশেই কার্যত দিনপঞ্জি হিসেবে গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডার অনুসরণ করা হয়।

নতুন বছরে পাঠকদের সিসি নিউজ-এর পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা। আগামী বছর আপনাদের আনন্দ ও সুখ-সমৃদ্ধির মধ্য দিয়ে যাক, এটাই প্রত্যাশা।

Print Friendly, PDF & Email