CC News

শর্তসাপেক্ষে কিছু প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত হবে: অর্থমন্ত্রী

 
 

ঢাকা, ১৪ জানুয়ারি : অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেছেন, ‘ঢালাওভাবে নয়, চলতিবছর কিছু সংখ্যক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে নতুন করে শর্তসাপেক্ষে এমপিওভুক্ত করা হবে। তবে জাতীয়করণের বিষয়ে বর্তমানে সরকারের কোনো সিদ্ধান্ত নেই।’
আজ রবিবার সচিবালয়ের অর্থ মন্ত্রণালয়ে জাতীয়করণের দাবিতে প্রেসক্লাবের সামনে আমরণ অনশনে থাকা ইবতেদায়ি মাদ্রাসা শিক্ষকদের প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের সামনে  এ কথা বলেন।
অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণের দাবিতে যারা রাস্তায় আন্দোলন করছেন, সে আন্দোলন তারা করুক। তাদের কিছুই দেওয়া হবে না।’
অর্থমন্ত্রী আরও বলেন, এমপিওভুক্তিটা ব্যাড পলিসি, আই ওয়ান্ট ইটস রিফর্মস, এটা হচ্ছে না সুতরাং আমি এমপিও আটকে রেখেছি। এবারে দিতে হবে, দেব… আই উইল গিভ ইট উইথ কনডিশনস।
তিনি বলেন, ‘‌এমপিওভুক্তি ইজ অনলি বেনিফিশিয়াল টু টিচার্স… সেজন্য এমপিও দেব কিন্তু সেখানে আমি কিছু কনডিশনস দেবো, যাতে পুরো সিস্টেমটা ম্যানেজ করা যায়। অবকাঠামো উন্নয়নের জন্য কিছু অংশ বরাদ্দ থাকবে, বিভিন্ন উপকরণ কেনার জন্যও।’
মুহিত জানান, শিক্ষা মন্ত্রণালয় জাতীয় শিক্ষানীতি গ্রহণ করেছে। শিক্ষানীতির সবটুকু আমার হাতে ড্রাফট করা, সেখানে তারা কিছু ইমপ্রুভ করে ওটা চূড়ান্ত করেছে। সেই পলিসি আমরা ফলো করছি। এমপিওভুক্তি নিয়ে এ মাসের মধ্যেই মিটিং হবে।
সেখানে একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এক কক্ষে পাঁচজন শিক্ষককে ক্লাস নিতে দেখার কথা জানিয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, রাবিশ! একটি ঘরের মধ্যে পাঁচটি ক্লাসকে শিক্ষা দিচ্ছে, কোনোটাই মাথায় ঢোকে না।
তিনি বলেন, গাছের নিচে হলেও শ্রেণিগুলো যেন আলাদা হয়, বিভিন্ন ক্লাসের শিক্ষার্থীরা যেন আলাদা বসতে পারে- এটা শিক্ষা ব্যবস্থার খুবই গুরুত্বপূর্ণ শর্ত।
এমপিওভুক্তির দাবিতে শিক্ষক-কর্মচারীরা সম্প্রতি আন্দোলনে নামেন। পরে প্রধানমন্ত্রীর আশ্বাসে কর্মসূচি প্রত্যাহার করেন তারা।

Print Friendly, PDF & Email