CC News

বাড়ছে ঠাণ্ডা, আবার শৈত্য প্রবাহ

 
 

সিসি নিউজ, ২১ জানুয়ারী: আবারো বাড়ছে ঠাণ্ডা। দুই বিভাগের সম্পূর্ণ অংশ এবং অন্য তিন বিভাগের কিছু অংশ মৃদু থেকে মাঝারী ধরনের শৈত্য প্রবাহ বিরাজ করছে। ১৯৪৮ সাল থেকে আবহাওয়া অফিস আবহাওয়া পর্যবেক্ষণের পর থেকে গত ৮ জানুয়ারি বাংলাদেশের ইতিহাসে সবচেয়ে নিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করেছে পঞ্চগড়ের তেতুলিয়ায়। সেদিন তেতুলিয়ায় তাপমাত্রা নেমেছিল ২.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। এর আগে ১৯৬৮ সালে চা বাগার বেষ্টিত মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে তাপমাত্রা নেমেছিল ২.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। অবশ্য গত ৮ জানুয়ারিতে সৈয়দপুরেও তাপমাত্রা রেকর্ড পরিমাণ নেমে যায় ২.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। ২০১৩ সালের ৯ জানুয়ারি দিনাজপুরে তাপমাত্রা নামে ৩.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

বাংলাদেশের আবহাওয়া অফিস বর্তমান শীতের কারণ হিসেবে সাইবেরিয়া থেকে আসার ঠাণ্ডা বায়ুকে দায়ী করছে।

আবহাওয়া অফিস অবশ্য এ মাসের শুরুতে আবহাওয়া মাসব্যাপী পূর্বাভাসে আরো শৈত্য প্রবাহের ইঙ্গিত দিয়ে রেখেছিল। তবে বর্তমান শীতটা হয়তো এর আগেটার চেয়ে কিছু কম দীর্ঘায়িত হতে পারে। কারণ দিবাভাগের পরিমাণ বেড়ে যাচ্ছে। সূর্য আগের চেয়ে কিছুটা বেশি তাপমাত্রা ছড়াতে পারছে। ধীরে ধীরে আরো তাপমাত্রা বাড়বে। ফেব্রুয়ারির প্রথম দিকেই দিনের বেলা অনেকটা উষ্ণ হয়ে উঠবে।

রাজশাহী ও রংপুর বিভাগে এবং মাদারীপুর, গোপালগঞ্চ, যশোর, সাতক্ষীরা, কুষ্টিয়া ও বরিশাল অঞ্চলে মৃদু থেকে মাঝারী ধরনের শৈত্য প্রবাহ বয়ে যাচ্ছে।

শনিবার দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় রাজশাহীতে ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সর্বোচ্চ ছিল কক্সবাজারে ২৮.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

Print Friendly, PDF & Email