CC News

সৈয়দপুর কারখানায় পূননির্মিত হলো অচল থাকা ইরানী কোচ

 
 

সিসি নিউজ, ২ ফেব্রুয়ারী: ১৯৯৮ সালে ইরান থেকে আমদানী করা হয়েছিল কোচগুলি। একযুগ পরে তা অচল হয়ে পড়ে থাকে চট্টগ্রামের পাহাড়তলীতে। চলতি বছর জানুয়ারী মাসের প্রথম সপ্তাহে ওইসব অচল কোচের মধ্যে ১৮টি কোচ সৈয়দপুর কারখানায় নেয়া হয় চলার উপযোগী হিসেবে গড়ে তোলার জন্য। কারখানার শ্রমিকরা পূবের ডিজাইনে আন্ডারফ্রেম স্যাগিং (বেকে যাওয়া) রোধকল্পে আন্ডারফ্রেম স্ট্রেনদেনিং (শক্তিশালী) করে কোচগুলি। প্রতিটি শোভন চেয়ার কোচের ৬০টি আসন এবং কোচের ফ্লোরসমূহ মাইন্ড স্টিলের পরিবতে স্টেইনলেস স্টিল দ্বারা প্রতিস্থাপন করা হয়েছে। মিটার গেজের রেলপথে চলাচলের উপযোগী ৩টি কোচ মেরামত সম্পন্ন করে আজ শুক্রবার পরীক্ষামূলক ভাবে সৈয়দপুর থেকে পঞ্চগড় রেলপথে পরীক্ষামূলক চালানো হচ্ছে।
পরে ওইসব কোচ লালমনিরহাট-ঢাকা রেলপথে চলাচলকারী আন্ত:নগর ট্রেন লালমনি এক্সপেসের সাথে সংযুক্তি করা হবে।
সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানার বিভাগীয় তত্ত্বাবধায়ক কুদরত-ই-খুদা জানান, লালমনি এক্সপ্রেসে চলাচলরত বতমান কোচসমূহের প্রতি ঘন্টায় সব্বোচ গতি ৬৫ কিলোমিটার। অপরপক্ষে পূনবাসিতব্য ইরানিয়ান কোচের সব্বোচ গতি হবে প্রতি ঘন্টায় ৮০ কিলোমিটার। ফলে লালমনিরহাট থেকে ঢাকা যেতে যাতায়াতে সময় কম লাগবে। এছাড়া বাকি কোচগুলির মধ্যে ১২টি কোচ আগামী মাচ মাসে সম্পন্ন করা হবে।

Print Friendly, PDF & Email