CC News

সৈয়দপুরে ছাত্রীকে অপহরণের অভিযোগে শিক্ষক চাকুরীচ‌্যুত

 
 

সিসি নিউজ, ১২ মার্চ: নীলফামারীর সৈয়দপুরে লায়ন্স স্কুল এন্ড কলেজের ছাত্রীকে একই কলেজের প্রভাষক কর্তৃক অপহরণের অভিযোগে শিক্ষক মাহফুজ আলমকে আটক করে জেলহাজতে পাঠিয়েছে পুলিশ। শনিবার ১০ মার্চ সন্ধ্যায় এ ঘটনায় রাতে সৈয়দপুর থানায় মামলা দায়ের হয়। অপরদিকে প্রতিষ্ঠান পরিচালনা কমিটির সভায় ওই শিক্ষককে চাকুরী থেকে অব্যহতি দেয়া হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, সৈয়দপুর লায়ন্স স্কুল এন্ড কলেজের প্রভাষক মাহফুজ আলমের সাথে দীর্ঘদিন ধরে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে টেকনিক্যাল কলেজ সংলগ্ন বালু পুকুর এলাকার জাকির হোসেনের কন্যা একই কলেজের কমার্স ২য় বর্ষের ছাত্রী জুইয়ের সাথে। মাঝখানে তাদের মধ্যে দ্বন্দের সৃষ্টি হয়। ঘটনার দিন বিকালে জুইকে ওই শিক্ষক তার ভাড়া বাসা কয়ানিজপাড়া নিম বাগান রোডে বাসায় ডাকে। এসময় দুই জনের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে ওই ছাত্রীকে মাহফুজ আলম ঘরে রেখে তালা দিয়ে বাহিরে যাওয়ার চেষ্টা করে। তখন ছাত্রীটি মোবাইল ফোনে তার পরিবারের লোকজনকে এ ঘটনা জানায়। খবর পেয়ে ওই ছাত্রীর মা পুলিশকে জানিয়ে ঘটনাস্থলে হাজির হয়ে ওই শিক্ষককে বেধর পিটুনি দেয়। এসময় পুলিশ এসে ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করে এবং অভিযুক্ত শিক্ষককে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।
রাতে ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে নারী শিশু নির্যাতন আইনে সৈয়দপুর থানায় মামলা দায়ের করে। মামলা নং- ৭। আটক ও মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সৈয়দপুর থানার অফিসার্স ইনচার্জ শাহজাহান পাশা।
আটক মাহফুজ আলম বগুড়ার সূত্রাপুর হাইস্কুল লেন সংলগ্ন এলাকার রহিমুদ্দিনের ছেলে। এ ব্যাপারে কথা হয় লায়ন্স স্কুল এন্ড কলেজের উপাধক্ষ্য নজরুল ইসলাম কিশোরের সাথে তিনি বলেন, প্রতিষ্ঠান পরিচালনা কমিটির সভায় ওই শিক্ষককে চাকুরী থেকে অব্যহতি দেয়া হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email