CC News

ক্ষোভে উত্তাল গোটা বাংলাদেশ

 
 

সিসি নিউজ, ১১ এপ্রিল: সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারের দাবি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হলে এক ছাত্রীর পায়ের রগ কাটার প্রতিবাদ এবং আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ‘রাজাকার’ বলে কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরীর বক্তব্যের প্রতিবাদ ও ক্ষোপে ফুসে উঠেছে দেশের সব বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

ক্লাস ও পরীক্ষা বর্জন করে দেশব্যাপী বিক্ষোভ, অবরোধের ফলে উত্তাল হয়ে উঠেছে পুরো বাংলাদেশ। ইতোমধ্যে শিক্ষার্থীরা উত্তরবঙ্গ ও উত্তর-দক্ষিণাঞ্চলের প্রবেশদ্বার ঢাকা-আরিচা-টাঙ্গাইল সড়ক, চট্টগ্রাম, বরিশাল, কুষ্টিয়া, ময়মনসিংহ, সিলেট, গাজীপুর, রংপুরসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় সড়ক অবরোধ করে অচল দিয়েছে।

ঢাকা, জাহাঙ্গীনগর, জগন্নাথ, চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, শাহজালাল, কুষ্টিয়াসহ দেশের সব বিশ্ববিদ্যালয়ের চলছে ক্লাস ও পরীক্ষা বর্জন। ফলে এসব বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক কার্যক্রম ছাড়া সব কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে।

এছাড়া রাজধানীর পান্থপথ, ফার্মগেট, প্রগতী স্বরণী, আগারগাঁওয়ে বেশ সরকারি বিশ্ববিদ্যায়, পুরান ঢাকা জবি বিশ্ববিদ্যায়, নিলক্ষেত মোড়ে ঢাবি অধিভুক্ত ৭ কলেজের শিক্ষার্থীরা অবরোধ করে রেখেছে। এতে ওইসব এলাকয় তীব্র যানজট দেখে দিয়েছে। কার্যত রাজধানীর অর্ধেক অচল হয়ে পড়েছে।

এর আগে গত সোমবার (৯ এপ্রিল) সচিবালয়ে সরকারের প্রতিনিধিদের সঙ্গে আন্দোলনকারী প্রতিনিধি দলের বৈঠকের পর ৭ মে পর্যন্ত আন্দোলন স্থগিতের ঘোষণা দেয়া হয়। তবে সাধারণ শিক্ষার্থীরা দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। এতে বিভক্ত হয়ে যায় আন্দোলনকারী।

পরেরদিন সংসদে আন্দোলনরতদের আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য এবং কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী ‘রাজাকারের বাচ্চা’ বলে তাদের দেখে নেয়ার হুমকি দিলে পরিস্থিতি আবার পাল্টে যায়। আন্দোলনকারীরা একাত্ম হয়ে আবারও মাঠে নামে এবং মতিয়া চৌধুরীকে বক্তব্য প্রত্যাহার করে ক্ষমা ও সরকারকে দাবি মেনে নেয়ার আল্টিমেটাম দেয়া।

সর্বশেষ পরিস্থিতি আরও উত্তপ্ত হয় মঙ্গলবার মধ্যরাতে কবি সুফিয়া কামাল হলের ছাত্রলীগ নেত্রী এশা হলের যে সকল ছাত্রীরা আন্দোলনে অংশগ্রহণ করেছেন তাদের ওপর হামলা এবং একজন ছাত্রীর পায়ের রগ কেটে দেয়ায়।

শিক্ষার্থীদের এই আন্দোলনকে যৌক্তিক দাবি করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য (ভিসি) অধ্যাপক ড. আখতারুজ্জামান, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতি, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যারয়ের শিক্ষক ড. জাফর ইকবালসহ অনেকে একাত্ম প্রকাশ করেছেন।

Print Friendly, PDF & Email