CC News

চিরিরবন্দরে পূর্ব শত্র“তার জের কীটনাশক দিয়ে ধানক্ষেত বিনষ্ট

 
 

সিসি নিউজ, ১২ এপ্রিল: দিনাজপুরের চিরিরবন্দরে পূর্ব শক্রতার জের ধরে কীটনাশক দিয়ে প্রতিপক্ষের ধানক্ষেত নষ্ট করেছে একটি প্রভাবশালী মহল। গত সোমবার উপজেলার ৩নং ফতেজংপুর ইউনিয়নের উত্তর পলাশবাড়ী গ্রামে। জমি সংক্রান্ত একটি মামলাকে কেন্দ্র করে ওই ঘটনা ঘটানো হয়েছে বলে এলাকাবাসী ধারণা করছেন। এব্যাপারে ক্ষতিগ্রস্থ জমি মালিক চিরিরবন্দর থানা একটি অভিযোগ দায়ের করেছে ।
অভিযোগে জানা গেছে, ওই এলাকার হোসেন আলীর সাথে প্রতিবেশী আশরাফ আলীর জমি সংক্রান্ত বিষয়ে মামলা চলছে। ওই মামলাকে কেন্দ্র করে আশরাফ আলী পক্ষ প্রায়ই হোসেন আলীর সাথে ঝগড়া-বিবাদ করে আসছিল। এরই ধারবাহিকতা গত সোমবার রাতের আঁধারে ওই পক্ষটি হোসেন আলীর ৭০ শতক জমির ইরি-২৮ জাতের ধান ক্ষেতে কীটনাশক ছিটিয়ে ধান বিনষ্ট করে। নষ্ট হওয়া ফসলের মূল্য প্রায় লক্ষাধিক টাকা বলে হোসেন আলী দাবি করেন।
ফসল নষ্ট করার অভিযোগে হোসেন আলী গতকাল (বৃহস্পতিবার) চিরিরবন্দর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযুক্তরা হলেন, আশরাফ আলী (৭৩), মাজহারুল ইসলাম (৩২), মমিনুল ইসলাম (২৬) উভয়ের পিতা আশরাফ আলী, হামিদুর রহমান (৪৫), পিতাঃ জমির উদ্দিন, আব্বাস আলী (৪২), পিতাঃ মৃত. আব্দুর রহীম, আসাদুল হক (২৮), পিতাঃ আব্দুর রহীম, মমতাজ আলী (৩০), পিতাঃ আব্দুল করিম, নুর উদ্দিন (৩৮), পিতাঃ নছির উদ্দিন ও পারভেজ (২৬), পিতা আজহার আলী।
৩নং ফতেজংপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নুর মোহাম্মদ লুনা বলেন, ঘটনাটি শুনেছি। এটা অমানবিক ও গর্হিত কাজ। মানুষে-মানুষে দ্বন্দ্বের জের ফসল হানি মেনে নেয়া যায় না। অভিযুক্তদের শাস্তি দাবি করেন।
উল্লেখ্য, এর আগেও হোসেন আলীর আলুক্ষেত কীটনাশক দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছিল ওই পক্ষটি।

Print Friendly, PDF & Email