CC News

সৈয়দপুরে স্কুল ছাত্রীর আপত্তিকর দৃশ্য ধারনের ঘটনায় মামলা

 
 

সিসি নিউজ, ২৫ এপ্রিল: সৈয়দপুরে সন্ধ‌্য়ায় প্রাইভেট পড়তে যাওয়ার সময় পঞ্চম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে (১৩) জোর করে তুলে নিয়ে নগ্ন ছবি ধারণ করেছে দুর্বৃত্তরা। পরে ওই ছবি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে দলবেঁধে ধর্ষণের চেষ্টা করেছে তারা। এ ঘটনায় ওই রাতেই হিরা (১৭) নামে এক যুবককে মোবাইল ফোনসহ আটক করা হয়েছে। পরে শ্লীলতাহাণীর শিকার স্কুল ছাত্রীর বড় বোন বাদি হয়ে সৈয়দপুর থানায় চার যুবকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার (২৩ এপ্রিল) সন্ধায় শহরের ১০ নং ওয়ার্ডের কাজিপাড়া এলাকায়।

অভিযোগে জানা যায়, সৈয়দপুর শহরের কাজিপাড়া এলাকার বাসিন্দা মৃত আঃ রাজ্জাকের ছোট মেয়ে শহরের মকবুল হোসেন ট্রাষ্ট স্কুলের পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রী। প্রতিদিনের মত সন্ধায় বাড়ির পাশে প্রাইভেট পড়তে যাচ্ছিল। পুর্ব পরিকল্পিত ভাবে ওৎপেতে থাকা একই এলাকার নুর ইসলামের ছেলে মিঠু (২৬), কামরুল হকের ছেলে বাপ্পি (২৪), বাচ্চুর ছেলে আক্তারুল (১৭) ও শামসুলের ছেলে আতা (১৭) চার যুবক ওই ছাত্রীকে জোর করে তুলে নিজ ফাকা বাড়িতে নেয়। পরে সেখান থেকে মুখ চেপে নিয়ে ফাঁকা ক্ষেতে। সেখানে বিবস্ত্র করে এবং সে দৃশ্য মোবাইল ফোনে ধারণ করে। পরে ধারণকৃত নগ্ন (বিবস্ত্র) ছবি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে যুবকরা দলবেঁধে তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করে।
এদিকে, আড়াই ঘন্টা নিখোজ হওয়ায় শিক্ষকসহ পরিবারের লোকজন এবং এলাকাবাসি খুঁজতে খুঁজতে ফাকা জায়গায় বিবস্ত্র অবস্থায় উদ্ধার করেন স্কুল ছাত্রীকে। পরে ছাত্রীর পরিবার সৈয়দপুর থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে ওই এলাকার ইদ্রিসের ছেলে হিরাকে মোবাইলসহ আটক করে।

ওই স্কুল ছাত্রীর বড় বোন রাজিয়া সুলতানা জানান, এ ঘটনা যাতে পুলিশের কাছে প্রকাশ করা না হয় এজন্য ওই ছাত্রীকে ও তার পরিবারের সদস্যদের প্রকাশ্যে বাড়িতে এসে হুমকি দিচ্ছে দুবৃত্তরা। এ ঘটনায় ন্যায় বিচার পেতে উর্ধতন সহায়তা কামনা করেন ছাত্রীটির পরিবার।

এ বিষয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার অশোক কুমার পালের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

Print Friendly, PDF & Email