CC News

জয়পুরহাটে মাদক সেবনের অভিযোগে ১১ জনের কারাদন্ড

 
 

জয়পুরহাট প্রতিনিধি, ১৭ মে: মাদক বিরোধী অভিযানে জয়পুরহাটের কালাই উপজেলার নান্দাইল দিঘী এলাকা থেকে ১১জন মাদকসেবীকে কারাদন্ড ও জরিমানার আদেশ দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত। গত বুধবার রাত ১০ টার দিকে র‌্যাব সদস্যরা তাদের গাজাঁ সেবনের অভিযোগে আটক করে দুপুরে কালাই উপজেলা নিবার্হী অফিসারের ভ্রাম্যমান আদালতে হাজির করা হলে এ রায় দেওয়া হয়।
জয়পুরহাট র‌্যাব ক্যাম্পের অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শামিম আহম্মেদ জানান, বুধবার রাতে উপজেলার নান্দাইল দিঘী এলকায় মাদক বিরোধী অভিযানে ১১ জনকে মাদক সেবনের অভিযোগে আটক করা হয়। আটককৃতরা হলেন, কালই উপজেলার পুনট ফকির পাড়া গ্রামের মৃত মাহফুজার রহমান মন্টুর ছেলে মিনহাজুর রহমান মিঠুন (২৮), পুনট বাজারের তোতা মিয়া ছেলে নায়েব আলী (৩৮), এনামুল হকের ছেলে জনি (২৮), পুনট নায়র পাড়া গ্রামের মোজাম্মেল প্রামানিকের ছেলে ফিরোজ প্রামানিক (৩২), একই গ্রামের কামাল উদ্দিনের ছেলে আব্দুল মতিন (২৮), নাদাইল দিঘি গ্রামের মোহাম্মদ আলীর ছেলে সাদ্দাম হোসেন (২৮), কাাথাইল গ্রামের নিজাম উদ্দিনের ছেলে জালাল উদ্দিন (৩৫), কারিগড় পাড়া গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে এনামুল হক (৩২), ক্ষেতলাল উপজেলার হাট শহর গ্রামের এরফান আলীর ছেলে সুমন (২৭), একই গ্রামের দিলিপের ছেলে রকি (১৮) ও বাগেরহাট জেলার চুলকাটি গ্রামের দুলাল কৃষ্ণ ভদ্রের ছেলে দানেজ কুমার ভদ্র (৩৮)।
পরে আটককৃত কালাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার আফাজ উদ্দিনের ভ্রাম্যমান আদালতের হাজির করলে তিনি আটকৃতদের মধ্যে মিঠুন, নায়েব আলী ও জনি এই ৩ জনের প্রত্যেতকে ৫ হাজার টাকা করে জরমিানা ও অবশিষ্ট ৮ জনের প্রত্যেকের ৬ মাসের বিনা শ্রম কারাদন্ডের আদেশ দেন।
জয়পুরহাটে মাদক সেবনের অভিযোগে ১১ জনের কারাদন্ড

জয়পুরহাট প্রতিনিধি, ১৭ মে: মাদক বিরোধী অভিযানে জয়পুরহাটের কালাই উপজেলার নান্দাইল দিঘী এলাকা থেকে ১১জন মাদকসেবীকে কারাদন্ড ও জরিমানার আদেশ দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত। গত বুধবার রাত ১০ টার দিকে র‌্যাব সদস্যরা তাদের গাজাঁ সেবনের অভিযোগে আটক করে দুপুরে কালাই উপজেলা নিবার্হী অফিসারের ভ্রাম্যমান আদালতে হাজির করা হলে এ রায় দেওয়া হয়।
জয়পুরহাট র‌্যাব ক্যাম্পের অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শামিম আহম্মেদ জানান, বুধবার রাতে উপজেলার নান্দাইল দিঘী এলকায় মাদক বিরোধী অভিযানে ১১ জনকে মাদক সেবনের অভিযোগে আটক করা হয়। আটককৃতরা হলেন, কালই উপজেলার পুনট ফকির পাড়া গ্রামের মৃত মাহফুজার রহমান মন্টুর ছেলে মিনহাজুর রহমান মিঠুন (২৮), পুনট বাজারের তোতা মিয়া ছেলে নায়েব আলী (৩৮), এনামুল হকের ছেলে জনি (২৮), পুনট নায়র পাড়া গ্রামের মোজাম্মেল প্রামানিকের ছেলে ফিরোজ প্রামানিক (৩২), একই গ্রামের কামাল উদ্দিনের ছেলে আব্দুল মতিন (২৮), নাদাইল দিঘি গ্রামের মোহাম্মদ আলীর ছেলে সাদ্দাম হোসেন (২৮), কাাথাইল গ্রামের নিজাম উদ্দিনের ছেলে জালাল উদ্দিন (৩৫), কারিগড় পাড়া গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে এনামুল হক (৩২), ক্ষেতলাল উপজেলার হাট শহর গ্রামের এরফান আলীর ছেলে সুমন (২৭), একই গ্রামের দিলিপের ছেলে রকি (১৮) ও বাগেরহাট জেলার চুলকাটি গ্রামের দুলাল কৃষ্ণ ভদ্রের ছেলে দানেজ কুমার ভদ্র (৩৮)।
পরে আটককৃত কালাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার আফাজ উদ্দিনের ভ্রাম্যমান আদালতের হাজির করলে তিনি আটকৃতদের মধ্যে মিঠুন, নায়েব আলী ও জনি এই ৩ জনের প্রত্যেতকে ৫ হাজার টাকা করে জরমিানা ও অবশিষ্ট ৮ জনের প্রত্যেকের ৬ মাসের বিনা শ্রম কারাদন্ডের আদেশ দেন।

Print Friendly, PDF & Email