CC News

বিরামপুরে বন্ধুকযুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ী প্রবাল নিহত

 
 

দিনাজপুর/বিরামপুর প্রতিনিধি, ২২ মে: দিনাজপুরের বিরামপুরে পুলিশের সাথে কথিত বন্ধুক যুদ্ধে দাগী মাদক ব্যবসায়ী প্রবাল হোসেন (৩৫)নিহত হয়েছে। এ সময় আহত হয়েছে,পুলিশের এসআই খুরশেদ আলম,এএসআই রাম চন্দ্র ও এক কনেষ্টবল।
আহত ৩ পুলিশ ভর্তি রয়েছে দিনাজপুর পুলিশ লাইন হাসপাতালে।
নিহত মাদক ব্যবসায়ী প্রবাল হোসেন বিরামপুর উপজেলার ২ নং কাটলা ইউরিয়নের বাবু পাড়া গ্রামের খলিলুর রহমানের ছেলে।
ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার দিবাগত রাত ২টায় দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলার মির্জাপুর ভবানীপুর মনিরামপুর মাঠ এলাকায়। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ ৩ রাউন্ডগুলিসহ একটি রিভালবার,৫টি ককটেল,একটি সামুরাই ও ৯২ পিস ফেন্সিডিল উদ্ধার করেছে। নিহত মাদক ব্যবসায়ী প্রবাল হোসেনের বিরুদ্ধে আগের ৮টি মামলা রয়েছে। ঘটনায় বিরামপুর থানায় অস্ত্র ও বিস্ফোরক আইনে দু’টি, মাদক আইনে একটি ও হত্যাসহ ৪টি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছে বিরামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুস সবুর।
থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জানায়,সোমবার মাদক ব্যবসায়ী প্রবাল হোসেনকে আটক করে পুলিশ। তাকে নিয়ে রাতে বিরামপুর থানার পুলিশের একটি চৌকস দল মাদক উদ্ধার করতে গেলে মাদক ব্যবসায়ী প্রবাল হোসেন ও তার সহযোগিতা পুলিশের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় পুলিশ আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি চালালে মাদক ব্যবসায়ী প্রবাল হোসেন ঘটনাস্থলে নিহত হয়। এ সময় আহত হয়েছে, এ সময় আহত হয়েছে,পুলিশের এসআই খুরশেদ আলম,এএসআই রাম চন্দ্র ও এক কনেষ্টবলকে ভর্তি রয়েছে দিনাজপুর পুলিশ লাইন হাসপাতালে।
নিহত মাদক ব্যবসায়ী প্রবাল হোসেনের লাশ সুরত হাল শেষে ময়না তদন্তের জন্য দিনাজপুর এম.আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।
এদিকে কথিত বন্ধুক যুদ্ধে প্রবাল নিহতের ঘটনাটি তার পরিবারের সদস্যরা পুলিশর সাজানো বলে অভিযোগ করেছেন।

Print Friendly, PDF & Email