CC News

সৈয়দপুরে সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত ৯, আহত ১৫: থানায় মামলা

 
 

সিসি নিউজ, ১৮ জুন: নীলফামারীর সৈয়দপুরে সড়ক দূর্ঘটনায় ৯ জন নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে অন্তত: ১৫ জন। রোববার দিবাগত রাত পৌনে ১০টার দিকে সৈয়দপুর শহরের বাইপাস মহাসড়কের ধলাগাছ মোড়ের অদূরে আহমেদ প্লাইউড ফ‌্যাক্টরীর সামনে ওই দূর্ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনায় পিকআপ ভ‌্যানের যাত্রী শহিদুল ইসলাম নিজে বাদী হয়ে আজ সোমবার সৈয়দপুর থানায় অজ্ঞাত বাস চালককে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেছে।

পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও প্রত‌্যক্ষদর্শীদের সূত্রমতে, নীলফামারী সদর উপজেলার চওড়া বড়গাছা ইউনিয়নের ২৭ যুবক খোলা পিকআপ ভ্যানে ঈদের আনন্দ করতে দিনাজপুরের স্বপ্নপুরী বিনোদন কেন্দ্রে বেড়াতে যায়। রাতে নিজ বাড়ীতে ফেরার পথে সৈয়দপুর শহরের বাইপাস মহাসড়কের ধলাগাছ মোড়ের অদূরে আহমেদ প্লাইউড ফ্যাক্টরীর সামনে পেছন দিক থেকে একটি ঢাকা কোচ পিকআপ ভ্যানটিকে ধাক্কা দেয়। এতে পিকআপ ভ্যানে থাকা যুবকেরা রাস্তার দুপাশে ছিটকে পড়লে কোচটির চাকায় পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলে ৮ যুবক নিহত হয়। নিহতরা হলেন নীলফামারী সদরের চওড়া বড়গাছা ইউনিয়নের নতিবাড়ী কাঞ্চন পাড়ার রুবেল আহমেদ, রাব্বী হোসেন, সাজেদুল ইসলাম ও খায়রুল ইসলাম, আরজী দলুয়া পাড়ার ময়নুল হক, ডালিম চন্দ্র ও শামীম হোসেন এবং ধোপা ডাঙ্গা পাড়ার বিধান চন্দ্র। এদের মরদেহ রাতেই স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। পরে সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে নেয়ার পথে মিজানুর রহমান (২০) নামে আরো ১ যুবক মারা যায়। এ ঘটনায় আহত হয় ১৫ জন। গুরুতর আহতের মধ্যে সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে ৪ জন ও রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ৭ জনকে ভর্তি করা হয়েছে। আহতরা হলেন জাবেদুল (১৭), মাজেদুল (২০), একরামুল (১৮), জামিনুল (১৮), এরশাদুল (২০), রকিবুল (১৮), শিপন (১৭), আবু মৃসা (১৭), ইব্রাহিম (১৮), শরিফুল (২০) ও গাড়ী চালক মাজেদুল (২৫)।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার অশোক কুমার পাল জানান, খোলা পিকআপ ভ্যানে যাত্রী পরিবহনের কারনে রোববার সৈয়দপুরের বিভিন্ন পয়েন্টে চেক পোষ্ট বসিয়ে ২৫টি পিকআপ ভ্যান আটকিয়ে মামলা দেয়া হয়েছে। অপরদিকে বেপোরায়া ভাবে মটরসাইকেল চালানোর দায়ে ৩২টি মটরসাইকেল আটক করা হয়েছে। তবু জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পিকআপ ভ্যানে যাতায়াত করছে। তিনি মহাসড়কে এসব যাত্রীবাহি পিকআপের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান নেয়ার কথা জানান।
নীলফামারী জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ খালেদ রাহীম জানান, নিহতের পরিবারকে এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আহতদের সকল প্রকার সহযোগিতা প্রদানের কথা জানালেন নীলফামারী জেলা প্রশাসন।

 

Print Friendly, PDF & Email