CC News

‘জনগণ ভোট দিতে পারলে সরকারের চিহ্ন থাকবে না’

 
 

ঢাকা, ০৮ জুলাই: বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, জনগণ ভোট দিতে পারলে স্বৈরাচারী সরকারের কোন চিহ্ন থাকবে না। এজন্য জনগণের ভোট ছাড়া আরেকটি প্রহসনের নির্বাচনের মাধ্যমে ক্ষমতায় থাকার চেষ্টা করছে সরকার। কিন্তু জনগণ সে আশা পূরণ করতে দেবে না। বারবার একই কায়দায় জনগনকে ধোকা দেয়া যাবে না।

জাতীয় প্রেসক্লাবে শনিবার খেলাফত মজলিস আয়োজিত ‘জাতীয় সংকট উত্তরণে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন অপরিহার্য’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। খেলাফত মজলিসের আমীর অধ্যক্ষ মাওলানা মোহাম্মদ ইসহাকের সভাপতিত্বে সভায় মূল বক্তব্য উপস্থাপন করেন সংগঠনের মহাসচিব ড. আহমদ আবদুল কাদের। সংগঠনের যুগ্মমহাসচিব শেখ গোলাম আসগরের সঞ্চালনায় সভায় আরো বক্তৃতা করেন, কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব:) সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহীম বীরপ্রতীক, ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মাওলানা আবদুর রকিব, লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি-এলডিপি’র মহাসচিব ড. রেদওয়ান আহমদ, জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের সহসভাপতি মাওলানা আবদুর রব ইউসুফী, জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য আহসান হাবিব লিংকন, খেলাফত মজলিসের নায়েবে মাওলানা সৈয়দ মজিবর রহমান, মাওলানা সাখাওয়াত হোসাইন, জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. আবদুল লতিফ মাসুম, বাংলাদেশ ন্যাপের মহাসচিব গোলাম মোস্তফা ভূঁইয়া, খেলাফত মজলিসের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ড. মোস্তাফিজুর রহমান ফয়সল, মাওলানা আহমদ আলী কাসেমী, প্রশিক্ষণ সম্পাদক অধ্যাপক আবদুল হালিম, অধ্যাপক মো: আবদুল জলিল প্রমুখ।

খন্দকার মোশাররফ বলেন, ৫ জানুয়ারীর নির্বাচন দেখে জাতি সিদ্ধান্ত নিয়েছে শেখ হাসিনার অধীনে বিএনপি, ২০ দল এবং জনগণ কোনভাবেই নির্বাচনে অংশগ্রহন করবে না। জাতীয় ঐক্য সৃষ্টির মাধ্যমে জনগনকে সাথে নিয়ে গণ আন্দোলনের মাধ্যমে সরকারকে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন দিতে বাধ্য করা হবে। মুক্ত খালেদা জিয়াকে নিয়েই আগামী নির্বাচন হবে।

মাওলানা মোহাম্মদ ইসহাক বলেন, জাতীয় সংকট উত্তরণের জন্যে জাতীয় ঐক্য গড়ে তুলতে হবে, জনগণকে সাথে নিয়ে আন্দোলন সংগ্রামে অবতীর্ণ হতে হবে। অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের মাধ্যমে সরকার পরিবর্তন করতে হবে। নিরপেক্ষ নির্বাচনে সরকারকে বাধ্য করতে হবে।

Print Friendly, PDF & Email