CC News

বিএনপি’র নেতার নির্দেশে বুলবুলের সভায় ককটেল হামলা

 
 
সিসি ডেস্ক, ২৩ জুলাই: বিএনপির এক নেতার নির্দেশে রাজশাহী মহানগরীর সাগরপাড়া বটতলা এলাকায় মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুলের পথসভায় ককটেল হামলার ঘটনা ঘটেছে। ঘটনায় অংশ নেয় নাটোরের যুবদল কর্মী খালেদ ও জাবেদ। সম্প্রতি বিএনপির সহ-দপ্তর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু ও রাজশাহী জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক একেএম মতিউর রহমান মন্টুর মধ্যে ফাঁস হওয়া ফোনালাপে এমনটাই শোনা গেছে।
১৯ জুলাই সকাল ১০ টা ৪১ মিনিটে তাইফুল ইসলাম টিপুকে ফোন দিয়ে  একেএম মতিউর রহমান মন্টু এ বিষয়ে কথা বলেন।
ফাঁস হওয়া ভয়েস রেকর্ডে মন্টুকে বলতে শোনা যায়, গত পরশু দিন রাজশাহীতে যে ঘটনা ঘটেছে শুনেছো নাকি। তাইফুল বলেন বোমা মেরেছে ঐ ঘটনা জানি।
মন্টু বলেন, ‘কারা এই কাজ করেছে তা কি জানো, আমি যা বলবো তা হজম করতে পারলে জায়গা মতো বলবা। আমাদের দুইজন জড়িত। বিএনপির লোক দিয়ে কাজ করানো হয়েছে। ভাইয়ের কাছ থেকে ক্রেডিট নেওয়ায় জন্য আমার নির্দেশে কাজ করেছে নাটোরের খালেক আর জাবেদ। জাবেদ হলো শাহিন শওকত ভাইয়ের লোক।’
এদিকে রোববার দুপুরে রাজশাহী মহানগর পুলিশ কমিশনার এ কে এম হাফিজ আক্তার তার কার্যালয়ে সাংবাদিকদের বলেন, মতিউর রহমান মন্টু ফোনে কথার বিষয়টি পুলিশের কাছে স্বীকার করেছেন। ফোনালাপে তিনি বিএনপির রাজশাহী বিভাগীয় সহসাংগঠনিক সম্পাদক শাহীন শওকত ও জাভেদ নামের দুজনের কথা বলেছেন। এ ছাড়া নাটোর বিএনপির এক নেতার কথা বলেছেন। তবে তদন্তের স্বার্থে এখনই তা প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ককটেল বিস্ফোরণের পর আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা নাটোরের রুহুল কুদ্দুস তালুকদার ও জাভেদ নামের রাজশাহী বিএনপির এক নেতার বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয়েছিল। এদের ব্যাপারে কোনো তথ্য আছে কি না—সাংবাদিকদের এই প্রশ্নের জবাবে পুলিশ কমিশনার বলেন, এখনই এ ব্যাপারে তাঁরা কিছু বলতে চাইছেন না।
গত মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে নগরের সাগরপাড়া বটতলার মোড়ে রাজশাহী জেলা ছাত্রদল গণসংযোগ করার সময় এই ককটেল হামলার ঘটনা ঘটে। এতে বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবীব, একজন সাংবাদিকসহ তিনজন আহত হন।
ফোনালাপের সূত্র ধরে শনিবার (২১ জুলাই) দিবাগত রাত দুইটার দিকে নগরের কালুমিস্ত্রির মোড় এলাকার নিজ বাসা থেকে মন্টুকে আটক করা হয়।
ওই হামলার ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা ৮ থেকে ১০ জনকে আসামি করে একটি মামলা করে। এই মামলায় এর আগে হিমেল (২৮) নামের এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে নগরের বোয়ালিয়া থানার পুলিশ। তার বাড়ি নগরের বোসপাড়া এলাকায়।
ফোনালাপ শুনতে ইউটিউবের লিংক : https://www.youtube.com/watch?v=W2bf2n4otVE
Print Friendly, PDF & Email