CC News

খেটে খাওয়া মানুষদের সমর্থন লিটনের পক্ষে

 
 

রাজশাহী: আগামী ৩০ জুলাই অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন ২০১৮। উক্ত নির্বাচনকে ঘিরে নির্বাচনী প্রচার প্রচারণা এখন তুঙ্গে। এবারের ভোটে ভাসমান ভোটারদের মধ্যে অধিকাংশই নগরীর খেটে খাওয়া মানুষজন। মেয়র থাকা অবস্থায় বুলবুল তাদের প্রতি বিরূপ আচরণের জন্য এবার তাদের সমর্থন পেতে হিমশিম খাচ্ছেন তিনি। ধারণা করা হচ্ছে এবার এই খেটে খাওয়া শ্রেণীর মানুষদের বেশিরভাগের সমর্থন লিটনের পক্ষে।

বুলবুলের নির্যাতনে ক্ষিপ্ত সারা রাজশাহীবাসী। তারা ক্ষোভের সাথে জানায় কিভাবে গত ৫ বছর যাবত শোষণ করে আসছে বুলবুল রাজশাহীর সাধারণ মানুষদের।

নগরীর প্রতিটি দোকানে দোকানে গিয়ে চাঁদা তোলার অভিযোগ রয়েছে বুলবুলের নেতা কর্মীর বিরুদ্ধে। কেউ চাঁদা দিতে রাজি না হলে তাকে মারধর করে দোকানপাট ভেঙে ফেলার ঘটনার কথাও জানায় নগরবাসী।

বুলবুল মেয়র থাকা অবস্থায় নাগরিক সনদ, ব্যবসায়িক সনদ সহ বিভিন্ন প্রয়োজনীয় কাগজ নিতে সিটি কর্পোরেশনে গেলে বিভিন্ন অঙ্কের টাকা দাবি করতো বুলবুলের অনুগত কিছু কর্মকর্তা কর্মচারী। এসব টাকার সিংহভাগ বুলবুলের পকেটেই যেত বলে জানা গেছে।

গরিবদের ঘৃণা করে তুচ্ছ ব্যবহার করা, বস্তিবাসীদের উচ্ছেদ করে দিবে ভয় দেখিয়ে বস্তিবাসীদের কাছ থেকে টাকা নেবার অভিযোগ আছে বুলবুলের বিরুদ্ধে।

গত ৫ বছরে ছারপোকার মতো রক্ত চুষে খেয়েছে নগরীর মানুষদের। আর তাই রাগে অভিমানে ক্ষিপ্ত রাজশাহীবাসী বুলবুলকে আর দেখতে চায় না মেয়র রূপে।

অন্যদিকে লিটন ২০০৮-১৩ সালে যখন মেয়র ছিল তখন রাজশাহীবাসি স্বস্তিতে ছিল। জনগণের যেকোন সমস্যা সমাধানে এগিয়ে আসতো। আর তাই নগরীর খেটে খাওয়া মানুষ লিটনকেই নগরপিতা রূপে দেখতে চায়।

Print Friendly, PDF & Email