CC News

কানাডায় প্রকাশ্যে গরু কোরবানি নিয়ে তোলপাড়!

 
 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ৩১ আগষ্ট: কানাডার খোলা জায়গায় গরু কোরবানি নিয়ে মিডিয়ায় এবং সর্বস্তরে তোলপাড় শুরু হয়েছে। খবরে প্রকাশ, সদ্য সমাপ্ত ঈদুল আজহার দিন মিল্টন শহরের একটি মসজিদের কাছে বাড়ির পেছনে প্রকাশ্যে গরু কোরবানি দেওয়া হয়। সেই দৃশ্য ধারণ করে সোসাল মিডিয়ায় ভিডিওটি ভাইরাল করা হয়। ফলে সর্বস্তর থেকে নিন্দা এবং প্রতিবাদের ঝড় ওঠে। অনলাইনে প্রচারিত সেই ভিডিওতে একজনকে উর্দুতে লিখতে দেখা গেছে। ফলে ধারণা করা হচ্ছে এরা পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত।
এ অমানবিক হত্যার বিভৎস এবং ভয়ানক ভিডিও সম্পর্কে হেলটন পুলিশ কর্মকর্তা ডানা নিকোলাস ঘটনায় জড়িতদের ‘হত্যাকারী’ আখ্যায়িত করে বলেন, আমরা পশু হত্যার নিষ্ঠুরতার অভিযোগ পেয়েছি এবং তদন্ত করা হচ্ছে।
এ সম্পর্কে মিডিয়াকে মসজিদের ইমাম শাবের আলী বলেছে,‌ কানাডায় খামারে কুরবানী পশু উৎসর্গ করা হয়। তাই করা উচিৎ।
অপর আরেক ইমাম সাঈদী বলেন, কানাডায় অনেক মুসলমান খামারে কুরবানী পশু উৎসর্গ করা হয়। তাই সেই নিয়ম, নীতি এবং প্রোটোকল পালন করা কর্তব্য। এমনকি কোন পশুকে কুরবানী করার আগে তার সঙ্গে সদয় ব্যবহার করা, ভালো পশু ভাল খাওয়ানো, যতটা সম্ভব যত্ন করা হাদিসে উল্লেখ আছে।
ওন্টারিওর কৃষি, খাদ্য ও পল্লী বিষয়ক মন্ত্রী এরনি হার্ডেমান এক বিবৃতি বলেন, এই ঘটনা এবং ভিডিওটি যেমন ঘৃণ্য, তেমন ভয়ঙ্করও বটে। কৃষি মন্ত্রণালয় অবিলম্বে জিজ্ঞাসাবাদ, তদন্ত এবং অনুসন্ধান করবে। জনগণের জন্য আমাদের সরকার পশুদের রক্ষা এবং খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। তাই তার মন্ত্রণালয় তদন্তকারী সংস্থার সঙ্গে কথা বলেছে।
মিল্টন সিটি কাউন্সিলর জিসান হামিদ বলেন, পুলিশের সঙ্গে হিউম্যান রাইটস সোসাইটির একটি দলও তদন্তে অংশ নিচ্ছে। আমরা পরবর্তী পদক্ষেপের অপেক্ষায় আছি।

Print Friendly, PDF & Email