CC News

পার্বতীপুরে ফেন্সিডিলের চাহিদা মেটোচ্ছে কাশির সিরাপ সিনামিন

 
 

আব্দুল্লাহ আল মামুন, পার্বতীপুর: পার্বতীপুরে ফেন্সিডিলের চাহিদা মেটোতে বর্তমানে কাশির সিরাপ হিসেবে পরিচিত সিনামিন, ঘুমের ওষুধ ডিসুপেন-২, অ্যালাট্রল ও প্যারাসিটামল জাতীয় ওষুধের কদর বেড়েছে মাদকসেবীদের কাছে। পার্বতীপুরে এসব ওষুধ সহজ লভ্যতার কারণে প্রতিনিয়তই বিভিন্ন ফার্মেসী থেকে এসব কিনে একত্রে মিশিয়ে নেশা জাতীয় দ্রব্য হিসেবে মাত্রাতিক্ত গ্রহণ করছেন মাদকসেবীর পাশাপাশি স্কুলগামী শিক্ষার্থীরা। সরকার মাদকের বিষয়ে জিহাদ ঘোষনা করায় দেশব্যপী সাড়াশি অভিযানের কারণে পার্বতীপুর শহরসহ প্রত্যন্ত অঞ্চলে ভারতীয় ফেন্সিডিলের সরবরাহ বন্ধ হওয়ায় বিকল্প হিসেবে এ পথ বেছে নিয়েছে তারা। যা এক প্রকার দুধের স্বাদ ঘোলে মেটানোর মতই বলা চলে। বিষয়টি প্রশাসনসহ সচেতন মহলের নজরে আসলে দিনাজপুরের পার্বতীপুরে উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি আলহাজ্জ্ব হাফিজুল ইসলাম প্রামানিক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রেহানুল হক চলমান মাদকদ্রব্য হিসেবে ব্যবহৃত এসব ওষুধ নির্বিচারে সরবরাহ বন্ধ ও ফার্মেসী মালিকদের সচেতনা বৃদ্ধির লক্ষ্যে এক ব্যতিক্রমী মতবিনিময় সভা করেন। এসময় ফার্মেসী মালিকদের চিকিৎসকের ব্যবস্থাপত্র ছাড়া কাউকে এসব ওষুধ বেচাকেনা না করার জন্য বলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার। এসময় উপস্থিত ছিলেন, পৌর মেয়র এ জেড এম মেনহাজুল হক, উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধরণ সম্পাদক রেজাউল করীম, উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা, রেলওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ আরিফুল ইসলাম, মডেল থানার উপ-পরিদর্শক আবু সাঈদ, ওষুধ ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আ: কাদের, সম্পাদক শহিদুল ইসলাম বাবলা, উপজেলার সকল ওষুধ ব্যবসায়ীসহ স্থানীয় সংবাদকর্মী প্রমূখ। অনুষ্ঠানে পার্বতীপুর পৌরসভার সকল ওষুধ ব্যবসায়ী প্রশাসনের সাথে একাত্বতা ঘোষনা করে মাদকমুক্ত পার্বতীপুর গড়ার দৃঢ প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

Print Friendly, PDF & Email