CC News

খালেদা জিয়াকে বিএসএমএমইউতে ভর্তির পরামর্শ

 
 

সিসি ডেস্ক, ১৬ সেপ্টেম্বর: কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা ঝুঁকিপূর্ণ নয় বলে জানিয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আব্দুল্লাহ আল হারুন।আজ রবিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) দুপুর সাড়ে ১২টায় সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ৫ সদস্যের মেডিক্যাল বোর্ড তাকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি করার পরামর্শ দিয়েছে।খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে বোর্ডের চিকিৎসকরা কী পেয়েছে জানতে চাইলে আবদুল্লাহ আল হারুন বলেন, ‘উনারা যেটা পেয়েছেন, নতুন কোনো সিরিয়াস উপসর্গ যোগ হওয়া, এটা হয়নি।’

তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার আগে থেকেই রিউম্যাটয়েডআর্থ্রাইটিস (গ্যাঁটে বাত) রয়েছে। সে কারণে দুই হাতে ও পিঠে ব্যথা অনুভব করেন। সে জন্য তাকে ব্যবস্থাপত্র দিয়েছেন চিকিৎসকরা। ৭৩ বছর বয়সী খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে হৃদযন্ত্র, রক্তচাপ বা ডায়াবেটিসের কোনো সমস্যা পাওয়া যায়নি বলে জানিয়ে বঙ্গবন্ধু মেডিক্যালের পরিচালক বলেন, মেডিকেল বোর্ড উনাকে ট্রিটমেন্ট দিয়ে এসছেন। এরপরও যদি হাসপাতালে ভর্তি হওয়া দরকার বলে তিনি মনে করেন, তা হলে মেডিক্যাল বোর্ড তাকে এমন একটি হাসপাতালে ভর্তি হতে বলেছেন যেখানে সব ডিসিপ্লিনের চিকিৎসা দেওয়া হয়। এদিকে বিএনপির পক্ষ থেকে অভিযোগ করে বলা হয়েছে, সরকার গঠিত মেডিকেল বোর্ডের চিকিৎসকদের দিয়ে খালেদা জিয়ার সঠিক চিকিৎসা হবে না এবং তার স্বাস্থ্যের দ্রুত অবনতি হচ্ছে।

আজ রবিবার বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশররফ হোসেন নয়াপল্টনে এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন।শনিবার বিকাল পৌনে ৪টার দিকে পুরান ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে প্রবেশ করেন চিকিৎসকরা।মেডিক্যাল বোর্ডে রয়েছেন- বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক আব্দুল জলিল চৌধুরী (ইন্টারনাল মেডিসিন), অধ্যাপক হারিসুল হক (কার্ডিওলজি), অধ্যাপক আবু জাফর চৌধুরী (অর্থোপেডিক সার্জারি), সহযোগী অধ্যাপক তারেক রেজা আলী (চক্ষু) ও সহযোগী অধ্যাপক বদরুন্নেসা আহমেদ (ফিজিক্যাল মেডিসিন)।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলার মো. মাহাবুবুল ইসলাম জানিয়েছিলেন, কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার চিকিৎসায় ৫ সদস্যের মেডিক্যাল বোর্ড গঠন করেছে সরকার।গত ৯ সেপ্টেম্বর বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের সঙ্গে দেখা করে খালেদা জিয়ার পছন্দ অনুযায়ী রাজধানীর কোনো বিশেষায়িত হাসপাতালে চিকিৎসা করানোর অনুরোধ জানায়।

এরপরই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান সংবাদ সম্মেলনে জানান, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার চিকিৎসায় মেডিক্যাল বোর্ড হবে। জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ৫ বছরের সাজাপ্রাপ্ত হয়ে চলতি বছরের ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে পুরান ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দি রয়েছেন খালেদা জিয়া। এরই মধ্যে একবার তার স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসকদের দিয়ে বিশেষায়িত বোর্ড গঠন করা হয়। ওই বোর্ডের চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী, শারীরিক পরীক্ষা করতে গত ৭ এপ্রিল খালেদা জিয়াকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে নেয়া হয়।

Print Friendly, PDF & Email