CC News

গ্রহণযোগ্য ব্যক্তিই মনোনয়ন পাবেন: কাদের

 
 

কুমিল্লা, ২২ সেপ্টেম্বর: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের জানিয়েছেন, জনগণের কাছে যিনি গ্রহণযোগ্য, তিনিই আগামী নির্বাচনে দলের মনোনয়ন পাবেন।

বিএনপির আন্দোলন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বিএনপি গত ১০ বছর ধরে আন্দোলন করতে পারেনি, এখন তারা এক মাসে কী আন্দোলন করবে?

তবে আন্দোলনের নামে তারা যদি আবারো নাশকতা করে বাসে আগুন দেয়, তবে তাদের প্রতিহত করতে সবার প্রতি তিনি আহবান জানিয়েছেন।

আওয়ামী লীগের নির্বাচনী প্রচারে ঢাকা থেকে সড়কপথে কক্সবাজার যাওয়ার সময় শনিবার বেলা সাড়ে ১১টায় কুমিল্লার দাউদকান্দির ইলিয়টগঞ্জে প্রথম পথসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

কাদের বলেন, চায়ের দোকানে বসে নিজ দলের নেতাকর্মীদের বদনাম করা চলবে না। ঘরের বিবাদের কথা পরকে বলবেন না। আমাদের শত্রু আমরা নিজেরা না। আমাদের বুঝতে হবে আসল প্রতিপক্ষ কে? মাথায় রাখতে হবে, বিএনপি-জামায়াতই আমাদের শত্রু।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের নামে যারা অপকর্ম করেছেন, চাঁদাবাজি করেছেন, তাদের দলে ঠাঁই নেই। আসল কর্মীরাই দলের মধ্যে টিকে থাকবেন। ঘরের মধ্যে ঘর দেখতে চাই না। পকেট কমিটি করবেন না। সুবিধাবাদীদের দলে আনবেন না। দলীয় প্রার্থীতার ক্ষেত্রে অসুস্থ প্রতিযোগিতা করা যাবে না। মনোনয়ন প্রত্যাশী সবাই হবেন, কিন্তু পাবেন মাত্র একজন।

নির্বাচনের আগে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, সকলের আমলনামা নেত্রীর কাছে জমা আছে। জরিপ হচ্ছে। জরিপের ফলাফলের ভিত্তিতেই মনোনয়ন দেয়া হবে। এখন আমাদের মার্কা একটাই সেটা হলো নৌকা মার্কা।

বিএনপির কঠোর সমালোচনা করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ২০১৪ সালের মতো আগুন–সন্ত্রাস বোমাবাজি ও পেট্রলবোমা দিয়ে বাসে আগুন দেয়ার মতো কোনো ঘটনা ঘটালে দলীয় নেতা–কর্মীদের কঠোর হস্তে দমন করতে হবে। গত ১০ বছরে ২০টি ঈদ গেলেও তারা কোনো আন্দোলন করতে পারেনি।

তিনি বলেন, বিএনপি আন্দোলন করতে পারবে না। তাদের ওপর জনগণের আস্থা নেই। যার কারণে আন্দোলন নিয়ে সাংবাদিকরা প্রশ্ন করলে বিএনপি শুধু এটুকুই বলে আসছে, ঈদের পরে আন্দোলনে নামবে বিএনপি। এই ঈদ নয়, ওই ঈদে। গত ১০ বছরে দশ মিনিটের জন্যও রাস্তায় নেমে আন্দোলন করতে পারেনি বিএনপি। বাকি একমাসে তারা কী আন্দোলন করবে!’

তিনি বলেন, ভবিষ্যতে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলে কুমিল্লায় উত্তর জেলার সাত উপজেলা নিয়ে প্রশাসনিক জেলা করা হবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ দলের সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে আগামী নির্বাচনে নৌকা মার্কাকে বিজয়ী করতে আহবান জানান। সভা পরিচালনা করেন সাংগঠনিক সম্পাদক এ কে এম এনামুল হক শামীম।

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল আওয়াল সরকার, সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম সরকার প্রমুখ।

শনিবার সকাল সাড়ে ৮টায় রাজধানীর ধানমন্ডির আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয় থেকে দলের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের নেতৃত্বে সড়কপথে চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারের উদ্দেশে এই নির্বাচনী সফর শুরু হয়।

যাত্রা শুরুর প্রাক্কালে কাদের বলেন, যাত্রায় আওয়ামী লীগের উন্নয়নের বার্তা মানুষের কাছে পৌঁছে দেবো। আমাদের নেতাকর্মীদের মধ্যে কোথাও বিবাদ-কলহ থাকলে তা মিটিয়ে এক সঙ্গে কাজ করার অনুপ্রেরণা দেয়া হবে।

আজ তিনি কুমিল্লা, ফেনী ও চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে বক্তব্য দেবেন। আগামীকাল লোহাগড়া ও কক্সবাজারে পথসভার মধ্য দিয়ে দুই দিনের কর্মসূচি শেষ হবে।

Print Friendly, PDF & Email