CC News

সৈয়দপুরে অপহৃত কলেজ ছাত্রী উদ্ধার, আটক-২

 
 

সিসি নিউজ, ১৮ অক্টোবর ॥ ঢাকার উত্তরা থেকে অপহৃত এক কলেজ ছাত্রীকে নীলফামারীর সৈয়দপুর থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০ টায় ঢাকার উত্তরা পশ্চিম থানা পুলিশ সৈয়দপুর থানা পুলিশের সহযোগিতায় উপজেলার ১ নম্বর কামারপুকুর ইউনিয়নের বক্সাপাড়া থেকে তাকে উদ্ধার করেন। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে দুই যুবককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তারা হচ্ছে সৈয়দপুর উপজেলার ১ নম্বর কামারপুকুর ইউনিয়নের বক্সাপাড়ার মৃত. বাবুল মিয়ার ছেলে আব্দুর রহিম (২৫) ও একই এলাকার  মো. খাদেমুল ইসলাম (৩০)।
জানা গেছে, অপহৃতা ঢাকার উত্তরা ৭ নম্বর সেক্টরের একটি কলেজের মানবিক দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী। ঘটনার দিন গত ১৪ অক্টোবর সে কলেজ ক্যাম্পাস থেকে বের হয়ে শহীদ গ্রেন মার্কেটে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ফটোকপি করতে যায়। এ সময় আব্দুর রহিম তাঁর সঙ্গীয় নুরুল ও কাদেরকে সঙ্গে নিয়ে একটি অটোরিকশা করে অপহরন করেন। পরে তাকে ঢাকার ডেমরা এলাকার একটি ম্যাচে রাখা হয়। পরবর্তীতে তাকে অপহরণকারী রহিমের তাঁর গ্রামের বাড়ি  নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলার কামারপুকুর ইউনিয়নের বকশাপাড়া নিয়ে এসে আটকে রাখা হয়। অপহৃতা কলেজ ছাত্রীর বাড়ি গাজীপুরের টঙ্গী পূর্ব আরিচপুর এলাকার। তাঁর বাবার নাম মৃত. এন্তাজ মিয়া।
এ ঘটনায় অপহৃতা কলেজ ছাত্রীর মামা এস এম মনির হোসেন জীবন গত ১৭ অক্টোবর ৫ জনকে আসামী করে ঢাকার উত্তরা পশ্চিম থানায় একটি অপহরণ মামলা করেন। মামলা নং ৩৫। থানায় এ মামলা দায়েয়ের পর উত্তরা পশ্চিম থানা পুলিশ অপহৃতা কলেজ ছাত্রীকে উদ্ধারে নামেন।  উত্তরা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. মাহবুর রহমানের নেতৃত্বে উত্তরা পশ্চিম থানা পুলিশ আজ বৃহস্পতিবার নীলফামারীর সৈয়দপুরে আসেন। পরে তারা সৈয়দপুর থানা পুলিশের সহযোগিতায় সৈয়দপুর উপজেলার কামারপুকুর ইউনিয়নের বকশাপাড়ার পৃথক পৃথক দুইটি বাড়ি থেকে কলেজ ছাত্রী অপহরণ মামলার প্রধান আসামী আব্দুর রহিম ও  খাদেমুলকে আটক করেন। পরে তাদের দেওয়া স্বীকারোক্তি অনুযায়ী একই এলাকার একটি বাড়ি থেকে অপহৃতা কলেজ ছাত্রীকে উদ্ধার করেন। পরে তাদের ঢাকার উত্তরা পশ্চিম থানায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে।
সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) মো. নুরুজ্জামান বেগ অপহৃতা কলেজ ছাত্রীকে উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

Print Friendly, PDF & Email