CC News

বাজছে বিপিএল দামামা

 
 

এ এল বাপ্পি, ঢাকা।। বাজছে বিপিএল দামামা। দেশি-বিদেশি ক্রিকেটারে মুখর মিরপুরের হোম অফ ক্রিকেট। শনিবার শুরু হতে যাওয়া বিপিএলের ৬ষ্ঠ আসরে মাঠ মাতাবেন সাকিব-তামিম-মাশরাফীরা। টি-টোয়েন্টির ফেরিওয়ালা ক্রিস গেইল, ডেভিড ওয়ার্নার কিংবা কেইরন পোলার্ড দর্শকদের দেবেন বাড়তি আনন্দ।

ফরেন কালেকশনে অন্য সবার চেয়ে শক্তিশালী করেছে রংপুর রাইডারদের। দলে যখন গেইল, ডি ভিলিয়ার্স, হেইলস, বোপারা থাকেন, তখন কিছুটা নির্ভারই থাকেন কোচ। টম মুডিকে আস্থা দিচ্ছে লোকাল রিক্রুটও। মাশরাফীর নেতৃত্বে আছে মিঠুন, নাজমুল অপু, ফরহাদ রেজার মতো ম্যাচ উইনার। ধারাবাহিকতা ধরে রাখার লক্ষ্য বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের। রাইডার্স কোচ টম মুডি জানিয়েছেন “কোন একজনের ওপর নির্ভর করে ম্যাচ জেতা যায় না। দলের সবাইকেই পারফর্ম করতে হয়। কিন্তু জয় কখনোই সহজ হয় না। আমাদের দলটা বেশ শক্তিশালী। নির্দিষ্ট কোন দিকে ফোকাস করছি না। প্রতিটি ম্যাচেই আমাদের গেইম প্লান বাস্তবায়ন করতে হবে।“

কাগজে কলমে গতবারের মতো এবারও শক্তিশালী দল ঢাকা ডায়নামাইটস। গতবার শিরোপা জিততে পারেনি। তবে, এবারে দৃঢ় প্রত্যয়ী ঢাকার দল। বিদেশি ক্রিকেটার ভরপুর উইন্ডিজ খেলোয়াড়ে। তবে, সাকিব আল হাসান ছাড়া দেশিরা সবাই নতুন এই দলে। তাই সঠিক কম্বিনেশন খুঁজে নেয়াই হবে কোচ খালেদ মাহমুদ সুজনের বড় চ্যালেঞ্জ।

মাহমুদুল্লাহর নেতৃত্বে ব্যালান্সড দল গড়েছে খুলনা টাইটানস। কার্লোস ব্রাথওয়েইট, দাউইদ মালান, লাসিথ মালিঙ্গারা দলের শক্তি বাড়িয়েছেন যেমন, তেমনি নাজমুল শান্ত, তাইজুল হোসেনরা দেশিয়দের মর্যাদা রাখবেন। এই আসরে মাহেলা জয়াওয়ার্দানে সুযোগ দেখছেন নিজেদের। বলছেন, “আমরা দলগত পারফরমেন্সে বিশ্বাস করি। দলের সবারই ভাল করার সামর্থ্য আছে। বেশ কিছু তরুণ ক্রিকেটারের সাথে অভিজ্ঞরাও আছে। পাশাপাশি লাসিথ মালিঙ্গা যোগ দিলে আমাদের শক্তি আরো বাড়বে।“

চিটাগং ভাইকিংসেও একগাদা বিদেশি নামী তারকা। লুক রঙ্কি, সিকান্দার রাজা, নাজিবুল্লাহ জাদরান… তারা আলো ছড়াবেন মাঠে। ক্যাপ্টেন মুশফিকুর রহিম পাচ্ছেন সানজামুল, সৈকত, খালেদ, সৈয়দপুরের ছেলে রবিউল হকের মতো তরুণদের।

তামিম ইকবাল, ইমরুল কায়েস, এনামুল বিজয়দের মতো বড় নাম আছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সে। বিদেশি তারকাদের মধ্যে সবচেয়ে বড় হালের ক্রেজ স্টিভেন্স স্মিথ। এছাড়াও শোয়েব মালিক, শাহিদ আফ্রিদি এভিন লুইসরা পরীক্ষিত।

সেই তুলনায় কিছুটা দুর্বল রাজশাহী কিংস। বিদেশি নাম রায়ান টেন টেশকাটে, মোহাম্মদ হাফিজ পরিচিত মুখ। মুস্তাফিজ, মুমিনুল, সৌম্য, শাহরিয়ার নাফিসদের নেতৃত্ব দেবেন পুঁচকে মেহেদী হাসান মিরাজ। লোকাল রিক্রুট রাজশাহীকে দিতে পারে বেশ কিছু ভাল শুরু।

সিলেট সিক্সার্সে মাঠ মাতাবেন লিটন দাস, নাসির হোসেন। সাব্বির রহমানও আছেন এই দলে। আছেন অলোক কাপালির মতো অভিজ্ঞও। সিলেট দলে সবচেয়ে বড় চমক ডেভিড ওয়ার্নার। আন্দ্রে ফ্লেচার, ইমরান তাহিরদের মতো টি-টোয়েন্টি স্পেশালিস্টরা তো থাকছেনই।

শনিবার উদ্বোধনী দিন দুই ম্যাচ। চ্যাম্পিয়নদের প্রতিপক্ষ চিটাগং ভাইকিংস। ঢাকা লড়বে রাজশাহীর বিপক্ষে।

Print Friendly, PDF & Email