CC News

সৈয়দপুর ফুটবল একাডেমি চ্যাম্পিয়ন

 
 

সিসি নিউজ, ২২ ফেব্রুয়ারী।। দিনাজপুরের পার্বতীপুর উপজেলার বেলাইচন্ডীতে আয়োজিত মরহুম মফিজ পন্ডিত ও কফিল উদ্দিন শাহ্ গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্টের ফাইনাল খেলা আজ শুক্রবার অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে সৈয়দপুর ফুটবল একাডেমি ৩-০ গোলে দিনাজপুর ফুটবল একাডেমিকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়। আর এ নিয়ে ওই টূর্ণামেন্টে পর পর তিনবার চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে সৈয়দপুর ফুটবল একাডেমি।
বিকেল সোয়া ৪ টায় খেলা শুরুর ২মিনিটের মধ্যে সৈয়দপুর ফুটবল একাডেমি প্রথম গোলটি করে। ওই দলের ৬ নম্বর জার্সিধারী খেলোয়াড় বাদশাহ্ কর্ণার সট (কিক) থেকে দলের ৫ নম্বর জার্সি পরিহিত খেলোয়াড় মো. তাহের প্রথম গোলটি করেন। প্রথমার্ধের খেলার ২৩ মিনিটের মাথায় সৈয়দপুর ফুটবল একাডেমির আরও একটি গোল করে দলকে ২-০ গোলে এগিয়ে নেয়। দ্বিতীয় গোলটি করে দলের ৬ নম্বর জার্সি পরিহিত খেলোয়াড় মো. বাদশা। এরপর দ্বিতীয়ার্ধের খেলার একেবারে শেষ মুর্হূতে সৈয়দপুর ফুটবল একাডেমির ১৭ নম্বর জার্সিধারী খেলোয়াড় মো. সাগর দলের পক্ষে আরো একটি গোল করেন। এতে সৈয়দপুর ফুটবল একাডেমি ৩-০ গোলে জয়ী হয়েছে।
টূর্ণামেন্টে চ্যাম্পিয়ন সৈয়দপুর ফুটবল একাডেমির টিম ম্যানেজারের দায়িত্বে ছিলেন মো. আহসান হাবিব সোহাগ এবং টিম লিডার ছিলেন সুশান্ত রায়।
এবারের ফুটবল টূর্ণামেন্টে চ্যাম্পিয়ন সৈয়দপুর ফুটবল একাডেমির মো. মোরশেদুল হক সেরা খেলোয়াড় এবং একই দলের মো. জসিম উদ্দিন সেরা গোলরক্ষক নির্বাচিত হন। আর টূর্ণামেন্টের সেরা রেফারি বিবেচিত হয়েছেন পাবর্তীপুরের মো. কামরুল হক কামু।
ফাইনাল খেলা পরিচালনা করেন কুড়িগ্রামের রেফারি মো. বিপ্লব তরফদার। সহকারি রেফারীর দায়িত্ব পালন করেন কুড়িগ্রামের মো. আলমগীর হোসেন ও মো. আখতারুজ্জামান। টূর্ণামেন্টের প্রতিটি খেলার ধারা ভাষ্যকার ছিলেন দিনাজপুরের বীরগঞ্জের মো. তইফুল ইসলাম তফু।
ফাইনাল খেলা উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দিনাজপুর-৫ (পাবর্তীপুর-ফুলবাড়ি) আসনের সংসদ সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রনালয় সম্পর্কীত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি আলহাজ¦ এ্যাডভোকেট মো. মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার।
এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন দিনাজপুরের পাবর্তীপুর সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ¦ মো. হাফিজুর রহমান প্রামানিক।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন এবং স্বাগত বক্তব্য রাখেন বেলাইচন্ডী ইয়ং সোসাইটির সভাপতি এ কে এম খুরশীদ আলম মজনু।
এতে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বেলাইচন্ডী ইয়ং সোসাইটির উপদেষ্টা ও লক্ষণপুর স্কুল এন্ড কলেজের সদ্য প্রাক্তন অধ্যক্ষ আলহাজ¦ মো. আব্দুল আজিজ। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন বেলাইচন্ডী ইয়ং সোসাইটির উপদেষ্টা অধ্যাপক মো. জালাল উদ্দিন, কৌশলী আলহাজ¦ মো. গোলাম মোস্তফা, সহ-সভাপতি মো. জাহাঙ্গীর আলম বিপ্লব, সাধারণ সম্পাদক মো. বারর আলী,যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মো. কামাল হোসেনসহ অন্যান্যরা।
শেষে টূর্ণামেন্টে চ্যাম্পিয়ন ও রানার্স আপ দলের কর্মকর্তা ও খেলোয়াড়দের হাতে প্রাইজমানি হিসেবে যথাক্রমে ৬০ হাজার টাকার এবং ৪০ হাজার টাকার চেক তুলে দেন প্রধান অতিথি এ্যাডভোকেট আলহাজ¦ মো. মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার।
এর আগে ফাইনাল খেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের শুরুতেই বেলাইচন্ডী মৈত্রী জুনিয়র বিদ্যালয় ও মৈত্রী বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী খেলার মাঠে মনোমুগ্ধকর ডিসপ্লে প্রদর্শন করে। পরে প্রধান অতিথি সাংসদ এ্যাড. মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার ফিতা কেটে ফাইনাল খেলার শুভ উদ্বোধন করেন। পরে তিনি ফাইনাল খেলায় অংশ নেয়া উভয় দলের খেয়োয়াড়দের সঙ্গে পরিচিত হন। টূর্ণামেন্টের ফাইনাল খেলায় ফুটবলপ্রেমী দর্শকদের উপচে পড়া ভীড় লক্ষ্য করা গেছে। পুরুষ দর্শকদের পাশাপাশি খেলার মাঠে বিপুল সংখ্যক নারী দর্শকও উপস্থিত হয়ে ফাইনাল খেলাটি উপভোগ করেন।
প্রসঙ্গত,“ক্রীড়াকে হ্যাঁ বলি, মাদককে না বলি, মাদকমুক্ত সমাজ গড়ি” শ্লোগানকে সামনে রেখে পাবর্তীপুরের বেলাইচন্ডী বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন মনপুরা মাঠে ওই ফুটবল টূর্ণামেন্টের আয়োজন করা হয়। এর আয়োজক পার্বতীপুরের বেলাইচন্ডী ইয়ং সোসাইটি। এ বছর টূর্ণামেন্টে বগুড়া, রংপুর, দিনাজপুর, ঠাকুরগাঁও, পঞ্চগড়, গাইবান্ধা, রাজশাহী এবং সৈয়দপুরসহ উত্তরাঞ্চলের মোট আটটি স্বনামধন্য ফুটবল দল অংশ নেয়। গত ২৫ জানুয়ারি ওই ফুটবল টূর্ণামেন্ট শুরু হয়।

Print Friendly, PDF & Email