CC News

কৌতুক অভিনেতা টেলি সামাদের দাফন গ্রামের বাড়িতে

 
 

ঢাকা, ৬ এপ্রিল।। জনপ্রিয় কৌতুক অভিনেতা টেলি সামাদ আর নেই। দুপুরে, রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। বার্ধক্যজনিত নানা অসুখে ভুগছিলেন ৭৪ বছর বয়সী এই অভিনেতা। আজই পশ্চিম রাজাবাজারে প্রথম জানাজা, কাল সকাল এগারোটায় এফডিসিতে দ্বিতীয় জানাজা এবং তারপর মুন্সীগঞ্জের গ্রামের বাড়িতে তৃতীয় নামাজে জানাজা শেষে দাফন করা হবে কৃতী এই অভিনেতাকে।
টেলিসামাদ সারাটা জীবন হাসিয়েছেন দর্শক-শ্রোতাদের। এমনকি বড়পর্দার অভিনয় ছাড়ার পর ছোটপর্দায়ও ছিলো তার উচ্ছল উপস্থিতি।
শক্তিশালী ও জনপ্রিয় কৌতুক অভিনেতা টেলি সামাদ চার দশক মাতিয়ে রেখেছিলেন দেশের চলচ্চিত্র অঙ্গন। ১৯৪৫ সালে মুন্সিগঞ্জে জন্ম নেয়া জনপ্রিয় এ অভিনেতা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলার শিক্ষার্থী ছিলেন। ১৯৭৩ সালে ‘কার বৌ’ চলচ্চিত্রের মধ্য দিয়ে অভিনয়ে পা রাখেন তিনি।
খ্যাতি পান আমজাদ হোসেনের নয়ন মণি চলচ্চিত্রের মধ্য দিয়ে। সংগীতেও পারদর্শি ছিলেন এই গুণী অভিনেতা। ৫০টির বেশি চলচ্চিত্রে তিনি গান গেয়েছেন, করেছেন সঙ্গীত পরিচালনা। পার্শ্ব চরিত্রের পাশাপাশি মনা পাগলা সিনেমায় তিনি মূখ্য চরিত্রে অভিনয় করে ব্যাপক প্রসংশিত হন।
শুরুতে আশীষ কুমার লৌহ পরে রবিউল আর দিলদারকে সাথে নিয়ে বাংলা চলচ্চিত্রে সফল কমেডিয়ান জুটি গড়েছেন টেলিসামাদ একের পর এক।
চার দশকে প্রায় ৬০০ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন, ২০১৫ সালে জিরো ডিগ্রী চলচ্চিত্রে সবশেষ ক্যামেরার সামনে দাঁড়িয়েছিলেন। বাংলা চলচ্চিত্রের ইতিহাসে টেলি সামাদ নামটি তাই স্থায়ী হয়ে থাকবে গভীর এক ব্যঞ্জনা হয়ে।

Print Friendly, PDF & Email