• মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ০৫:২৪ অপরাহ্ন |

ঐশীর জন্য কারাগারে বই-খাতা পাঠানোর নির্দেশ

Yshiঢাকা: রাজধানীতে পুলিশের বিশেষ শাখার পরিদর্শক মাহফুজুর রহমান ও তার স্ত্রী স্বপ্না রহমান হত্যা মামলার আসামি তাদের মেয়ে ঐশী রহমানের জামিন না মঞ্জুর করেছেন আদালত। তবে তার ‘ও’ লেভেল পরীক্ষার প্রস্তুতির জন্য কারাগারে বই-খাতা পাঠানোর নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
আজ রবিবার সকালে ঢাকা মহানগর হাকিম আসাদুজ্জামান নূর এ আদেশ দেন। এর আগে ঐশীকে আদালতে হাজির করে তার পক্ষে জামিন আবেদন করেন তার আইনজীবী প্রকাশ চন্দ্র বিশ্বাস।
উল্লেখ্য, এর আগেও দুই দফা জামিন আবেদন করা হয় ঐশীর পক্ষে। তবে আদালত বরাবরই তার জামিন আবেদন না মঞ্জুর করেন।
এদিকে ঐশীকে অভিযুক্ত করে আদালতে শিগগির অভিযোগপত্র দাখিল করবে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। গোয়েন্দা পুলিশ এ ব্যাপারে তদন্ত কাজ প্রায় গুছিয়ে এনেছে। ইতোমধ্যেই প্রয়োজনীয় সব পরীক্ষা নিরীক্ষার কাজ শেষ হয়েছে। প্রয়োজনীয় রিপোর্ট এখন তদন্ত কর্মকর্তার হতে এসেছে।
সূত্র জানিয়েছে, অভিযোগপত্রে ঐশীকে প্রধান আসামি করা হয়েছে। হত্যাকাণ্ডে ঐশীকে তার বন্ধু জনি, রনি ও গৃহপরিচারিকা খাদিজা আক্তার সুমীর সহযোগিতা করার কথা থাকছে।
ঐশী ইতোমধ্যেই হত্যাকাণ্ডের দায় স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছে। জনি ও রনির বিরুদ্ধে হত্যাকাণ্ডে সহযোগিতা করা ছাড়াও খুনের ঘটনায় প্ররোচিত করার কথাও থাকছে অভিযোগপত্রে।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা গোয়েন্দা পুলিশের ইন্সপেক্টর মো. আবুল আল খায়ের মামলার ব্যাপারে মাতব্বর জানান, তদন্ত কাজ শেষ হয়ে গেছে। যে কোন সময়ে আদালতে অভিযোগ পত্র দাখিল করা হবে।
২০১৩ সালের ১৪ আগস্ট দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে রাজধানীর চামেলীবাগে নিজ বাসায় মেয়ে ঐশীর হাতে স্ত্রীসহ খুন হন পুলিশের বিশেষ শাখার পরিদর্শক ইন্সপেক্টর মো. মাহফুজুর রহমান ও তার স্ত্রীর নাম স্বপ্না রহমান। এ ঘটনায় পুলিশ বিভাগসহ সারা দেশে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করে।
ঘটনার দুইদিন পর ১৬ আগস্ট সন্ধ্যায় ফ্ল্যাটের দরজা ভেঙ্গে নিহত দম্পতির লাশ গোয়েন্দা পুলিশ উদ্ধার করে। নিহত দম্পতির দু’টি সন্তান। বড় মেয়ে ঐশী ও ছোট ছেলে ওহী।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ