• শনিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ১১:৩১ অপরাহ্ন |

বাবার প্রেমিকাকে ধর্ষণ

dorson-2গোপালগঞ্জ: প্রেমিকা পারুল বিশ্বাস (ছদ্দ নাম), ৭ম শ্রেণীর ছাত্রী। না বুঝেই জড়িয়ে পড়ে নিজ গ্রাম গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার দুর্গাপুর গ্রামের ৫৫ বছর বয়সী হান্নান মোল্যার প্রেমে। এরই জের ধরে হান্নান মোল্যা ছেলে ও দুই জামাই কর্তৃক পারুলকে ধর্ষের অভিযোগ উঠেছে। পারুল বর্তমানে গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধী রয়েছেন।

পারুল বিশ্বাস অভিযোগ করে বলেন, গত দুই বছর আগে হান্নান মোল্যার সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। হান্নান মোল্যা বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে একাধিকবার ধর্ষণও করে তাকে। তাদের এ সম্পর্কের বিষয়টি হান্নান মোল্যার পরিবারের সদস্যদের মধ্যে যানা-জানি হয়। মাস তিনেক আগে পারুল তার বোনকে নিয়ে বোনের বাড়ি যাওয়ার পথে উলপুর থেকে দুই জোড়া কানের দুল ও নগদ ৪ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয় হান্নান মোল্যার ছেলে ও জামাই। বিষয়টি নিয়ে থানায় অভিযোগ করলে, ৭ দিনের মধ্যে ছিনিয়ে নেয়া জিনিসপত্র ফেরৎ দেয়ার কথা হয়।

গত ১০ জানুয়ারী একই গ্রামের জনৈক সুরতি বেগম গয়না ও টাকা ফেরৎ দেয়ার কথা বলে হান্নান মোল্যার বাড়িতে ডেকে নিয়ে পারুলকে হান্নানের জীবন থেকে সরে যাওয়ার হুমকী দেয়। ১১ জানুয়ারী রাত সাড়ে ১০ টার দিকে একই কায়দায় পার্শ্ববর্তী জাকির মোল্যার বাড়িতে ডেকে নিয়ে প্রথমে মারপিট ও পরে পালাক্রমে হান্নান মোল্যার ছেলে লিটু মোল্যা, জামাই সাজ্জাদ মোল্যা ও আনিচ মোল্যা ধর্ষণ করে বলে জানায় পারুল। এ ঘটনার পর গত ১৪ জানুয়ারী পারুলকে ফিজিক্যাল টর্চার দেখিয়ে গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
এ ব্যাপারে পারুলের বাবা রঞ্জিত বিশ্বাসের সাথে কথা হলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, বিষয়টি গ্রাম্য শালিশির মাধ্যমে মিমাংশার চেষ্টা চলছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ