• সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ১১:০৪ অপরাহ্ন |

অবশেষে ছুটি প্রত্যাহার….

Dinajpurএকরামুল হক বেলাল,পার্বতীপুর (দিনাজপুর): কথা ছিল পূর্ব ঘোষিত সূচি অনুযায়ি শনিবার বেলা সাড়ে ১১টায় জ্ঞানাঙ্কুর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ে দিনাজপুর-৫ (পার্বতীপুর-ফুলবাড়ী) আসনের সাংসদ প্রাথমিক ও গনশিক্ষা মন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমানকে পার্বতীপুরের ২০৮টি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রায় ১ হাজার শিক্ষকদের পক্ষ থেকে সম্বর্ধনা দেয়া হবে। এ জন্য আগের দিন সেখানে বিশাল প্যান্ডেল তৈরী করা হয়। মঞ্চ, আসন, মানপত্র, ফুলের মালা সবই প্রস্তুত রাখা হয়। শিক্ষকরা সবাই যাতে সম্বর্ধনা সভায় উপস্থিত থাকতে পারেন এ জন্য ২০৮ স্কুলে ঘোষনা করা হয় ১দিনের “সংরক্ষিত ছুটি”। উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির একাংশের সাধারন সম্পাদক মতিয়ার রহমান জানান, সম্বর্ধনার জন্য লক্ষাধিক টাকার বাজেট ধরা হয়েছিল। ৯৭১ শিক্ষক-শিক্ষিকাসহ প্রায় ১১’শ অতিথিকে মধ্যাহ্ন ভোজে আপ্যায়নের জন্য কেনা হয় ১২টি খাসি। আয়োজন ছিল ১১’শ প্যাকেট দুপুরের খাবারের। কিন্তু ২০৮ স্কুলে বির্তকিত ছুটি ঘোষনা করে মন্ত্রীকে সম্বর্ধনা দেয়ার খবর গনমাধ্যম কর্মীদের কাছে আগেই পৌছে যাওয়ায় ও বিভিন্ন গন মাধ্যমে তা প্রকাশিত হওয়ায় শিক্ষা প্রশাসনে তোলপাড় শুরু হয়। খবরটি গনমাধ্যমে যাওয়ার বিষয়টি সংশ্লিষ্ট মন্ত্রীর কানে গেলে তিনি প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগের দিনাজপুর জেলা,পার্বতীপুর উপজেলা কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে সম্বর্ধনা স্থগিত ও ছুটি বাতিলের নির্দেশ দেন।
গতকাল দুপুরে সম্বর্ধনা সভা স্থলে গেলে দেখা যায়- মন্ত্রী ভেন্যু স্কুলের বিজয়ী শিক্ষার্থিদের মাঝে বার্ষিক ত্র“ীড়া প্রতিযোগিতার পুরুস্কার বিতরন করছেন। মন্ত্রী বলেন, বিভিন্ন গন মাধ্যমে “মন্ত্রীকে সম্বর্ধনা দিতে ২০৫ প্রাইমারী স্কুলের ছুটি ঘোষনা” শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ করেছে। কিন্তু আমি তা জানতে পেরে ছুটি ও সম্বর্ধনা কর্মসূচি যে বাতিল করেছি সে খবর কি বিভিন্ন গন মাধ্যমে ছাপবে ? সম্বর্ধনা স্থলে আগত দীপশিখা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক করুনা কান্ত বিশ্বাস বলেন, সম্বর্ধনার কথা বলে প্রত্যেক শিক্ষকের কাছ থেকে ১’শ টাকা করে চাঁদা তোলা হয়েছে অথচ এখন আয়োজকদের কাউকে খুজে পাওয়া যাচ্ছেনা।
সংরক্ষিত ছুটি প্রসঙ্গে দিনাজপুর জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলাম বলেন, সরকারী বিধি অনুযায়ী প্রধান শিক্ষকরা যে কোন জরুরী কাজে বছরে ৩ দিন সংরক্ষিত ছুটি ব্যবহার করতে পারেন। মন্ত্রীর সম্বর্ধনায় সংরক্ষিত ছুটির ব্যবহার নৈতিক ও আইনগত ভাবে অন্যায় কিছু হয়নি। এ ছাড়া ১ দিনের ছুটিতে শিক্ষাথীদের পড়া-শুনার ক্ষতির বিষয়টি গন্য করার মতো কোন ব্যাপার নয়। তিনি বলেন, প্রধান শিক্ষকদের আবেদন ও উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার সুপারিশের ভিত্তিতে আমি ছুটি অনুমোদন করেছি।
পার্বতীপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাহেনুল ইসলাম বলেন, কিছু অতি উৎসাহি শিক্ষক নেতাদের কারনে এ ঘটনা ঘটেছে। তবে মন্ত্রী সংবাদটি জানার পর পরই ছুটি বাতিলের নির্দেশ দেন ও সম্বর্ধনা স্থগিত করেন। তিনি দাবী করেন শনিবার যথা রীতি স্কুল খোলা ছিল, ক্লাসও হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ