• রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ০২:১৬ পূর্বাহ্ন |

‘ক্যামেরার সামনে জামাকাপড় খুলতে কিসের লজ্জা’

indiaবিনোদন ডেস্ক: সমকামীদের নিয়ে বাংলা ছবি বানিয়ে বোমা ফাটালেন পশ্চিম বাংলার পরিচালক রাতুল গঙ্গোপাধ্যায়। ছবির নাম ‘১০ জুলাই’। রিলিজ এই ফেব্রুয়ারিতেই। ছবির নায়িকা ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। নায়ক অভ্রজিত।

কিন্তু সারা দেশে সমকামী প্রেম যেখানে নিষিদ্ধ, সেখানে এই ছবির রিলিজ নিয়ে কোনও সমস্যা হচ্ছে না? ‘এখনও অবধি তো সব কিছু ঠিকই আছে, কোনও সমস্যা নেই। আমি যখন ছবিটা তৈরি করি তখনও তো ৩৭৭ বহাল তবিয়তেই ছিল। তৈরি করতে যখন কোনও অসুবিধে হয়নি, আশা করি রিলিজেও কোনও অসুবিধা হবে না’, আশাবাদী পরিচালক।

কিন্তু এখন প্রশ্ন হল, ঠিক যেমন করে ছবিটা বানিয়েছিলেন ঠিক তেমনিভাবেই কি ছবিটার রিলিজ সম্ভব হল? ‘আমাদের A সার্টিফিকেট দিয়েছে সেন্সর বোর্ড। আর একটা-দুটো সিন একটু এডিট করতে হয়েছে’, জানালেন রাতুলবাবু। কী এমন সেই দৃশ্য যা কেটে বাদ দিতে হল? এইবার একটু দোনামোনা করলেন ছবির পরিচালক। এড়িয়ে গেলেন যাবতীয় বিতর্ক। তাহলে কি এমন কোনও সাহসী দৃশ্য যা হয়তো এক ঝটকায় বাংলা ছবিকে সাবালক করে দিত পারত?

কথায় কথায় এক বিশ্বস্ত সূত্র থেকে মিলল সেই ‘পাপ’-এর ‘প্রায়শ্চিত্ত’-এর কথা। ‘ছবিতে নায়কের নগ্ন দৃশ্যটা রাখা গেল না। রাখতে দিলে একটা মিরাকল ঘটত’। নগ্ন মানে ঠিক কতটা নিজেকে খুলেছেন এ-ছবির নায়ক? শুনুন নায়ক অভ্রজিতের মুখেই! ‘আমি তো অভিনেতা। তাই ক্যামেরার সামনে জামাকাপড় খুলতে আমার আবার কীসের লজ্জা! বরং ক্যামেরার পেছনে জামাকাপড় খুলতে আমার একটা কিন্তু-কিন্তু আছে। তাই রাতুলদা ন্যুড সিন শ্যুট করার কথা বললে আমার সেইভাবে কোনও অসুবিধা হয়নি।

তবে সিনটা শ্যুট করার সময় পরিচালক, ক্যামেরাম্যান আর চিরঞ্জিৎদা ছাড়া আর কাউকে আমরা অ্যালাও করিনি’। তা, চিরঞ্জিৎ-এর মতো অত সিনিয়ার অভিনেতার সঙ্গে ন্যুড হয়ে শট দিতে নিশ্চয়ই ঘাম ছুটে গিয়েছিল নায়কের? ‘চিরঞ্জিৎদাই ব্যাপারটা একদম হালকা করে দিয়েছিল। যখনই শুনল এরকম একটা বিপজ্জনক শট নেওয়া হবে তখন আমায় বলল, আর কী! চল শটটা দিয়ে দিই আমরা। কিন্তু এই শটটা তো রাখতেই দিল না’, স্পষ্ট অভিমান ধরা পড়ল নায়কের গলায়।

অবশ্য বিতর্কিত বিষয় ছাড়াও কাস্টিং এই ছবির ইউএসপি। অনেক দিন পর চিরঞ্জিৎকে রুপোলি পর্দায় ফিরছেন এই ছবি দিয়ে। তাও আবার একজন সমকামী অফিস বসের ভূমিকায়। দেবশ্রী রায় এই ছবির জন্য একটি আইটেম নম্বর নেচেছেন। আর আছেন ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি।

কিন্তু এত তারিখ থাকতে হঠাৎ ‘১০ জুলাই’ কেন? ‘আসলে এই তারিখেই তিন তিনটে ঘটনা ঘটবে এই ছবিতে। যে তিনটে ঘটনার ওপরেই ছবিটা দাঁড়িয়ে, তাই ১০ জুলাই’, বললেন পরিচালক।

‘পুরুষ হও বা নারী, তুমিই আমার সখা’- ঋগ্বেদের এই উক্তিকে পুঁজি করেই ‘১০ জুলাই’ ১৪ ফেব্রুয়ারি মুক্তি পেতে চলেছে।

উৎসঃ   প্রাইমনিউজ


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ