• বৃহস্পতিবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২১, ১২:১৩ পূর্বাহ্ন |

নিজেকে ভাগ্যবতী মনে করেন বিদ্যা বালন

Bidda Balanবিনোদন ডেস্ক: জাতীয় পুরষ্কার পাওয়ার পর নিজেকে ভাগ্যবতী মনে করেছিলেন বিদ্যা বালন। কিন্তু তার থেকে বেশি প্রত্যাশা এখনই করেননি জীবন থেকে। আর পদ্মশ্রী পাওয়ার কথা স্বপ্নেও কোনওদিন কল্পনা করতে পারেননি। সেই কল্পনা বা স্বপ্নের অতীত কোনও কিছু যদি এসে ধরা দেয়, তাহলে তা পরম প্রাপ্তিই বটে!

এবছরই প্রজাতন্ত্র দিবসের দিন পদ্মশ্রী-র প্রাপক হিসেবে নাম ঘোষিত হয় বিদ্যা বালনের। তারপরেই তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে উচ্ছ্বসিত বিদ্যা ফোনের ওপার থেকে বলেন, ” বিশ্বাস করুন জীবনের এই পর্যায়ে পৌঁছেই পদ্মশ্রী পাবো কখনও কল্পনাই করতে পারিনি! আমার শুধু মনে হত জাতীয় পুরষ্কার পাওয়াটাই অনেক সম্মানের। নিঃসন্দেহে এটি আমার জীবনের অন্যতম সেরা প্রাপ্তি।”

ববি জাসুস ছবির শ্যুটিং করার সময় এই সুখবরটি স্ত্রীকে জানান সিদ্ধার্থ রায় কপুর। “যেহেতু এই ধরনের উপাধির ক্ষেত্রে কোনও রকম নমিনেশন থাকে না, তাই আগে থেকে বোঝা সম্ভবই না এমন একটি সারপ্রাইজ আসতে চলেছে আপনার কাছে! জানার পরেই সেটে ছোট্ট সেলিব্রেশন করা হয়। সামান্য খাওয়াদাওয়া হইহুল্লোড় করা হয়। তবে বাড়ি ফেরার পর দেখি মা-বাবা এবং আত্মীয় স্বজন মিলে এই সুসংবাদ সেলিব্রেট করার জন্যে ছোট্ট একটি আয়োজন করেছেন। মা-বাবার কাছেও যে এটি বড় খুশির খবর! ”

তবে এত সহজে এই খবর পৌঁছায়নি বিদ্যার কাছে। তাঁর নাম ঘোষণা হওয়ার পরই তাঁকে ক্রমাগত যোগাযোগ করার চেষ্টা করেন তাঁর স্বামী সিদ্ধার্থ। কিন্তু শ্যুটিংয়ে ব্যস্ত থাকার ফলে তাঁর ফোনই রিসিভ করতে পারেননি বিদ্যা। পরে দিন শেষে অগুনতি মিসড কল দেখে তত্‍‌ক্ষণাত্‍‌ ফোন করেন স্বামীকে। ওপর প্রান্ত থেকে যে খবরটি পান, সেটি নিঃসন্দেহে তাঁর জীবনের সেরা খবর।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ